চার ধাপে ছড়ায় ক’রো’না, বাংলাদেশ এখন কোথায়?

প্রকাশিত: মার্চ ১৯, ২০২০ / ১১:৩৮অপরাহ্ণ
চার ধাপে ছড়ায় ক’রো’না, বাংলাদেশ এখন কোথায়?

বিশ্বব্যাপী প্রা’ণ’ঘা’তী করোনা ভা’ই’রা’সে আ’ক্রা’ন্তের সংখ্যা ২ লাখ ২৯ হাজার ৮৮১ জন। আর মৃ’তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে ৯ হাজার- ৯৩৭৭ জন মা’রা গেছে। করোনা মো’কা’বেলায় আরো কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের পর দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোকে স’ত’র্ক করেছে বিশ্বস্বাস্থ সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

বলা হচ্ছে বিশ্বব্যাপী ক’রে’না ভা’ই’রা’সে আ’ক্রা’ন্তের সংখ্যা দেশে দেশে ছড়িয়ে পড়েছে মোট চারটি ধাপে।

এমনই তথ্য উঠে এসেছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে।

প্রতিবদেনটিতে উল্লেখ করা হয়েছে ৪ টি ধাপ। যে ধাপগুলোতে ক্রমান্বয়ে পুরো গোটা দেশে ছড়িয়ে পড়ে। এবং পরস্থিতি ক্রমান্বয়ে খারাপের দিকে যেতে থাকে।

প্রথম ধাপ: এ পর্যায় হলো এমন অবস্থা যখন কোনো একজন ব্যক্তি আক্রান্ত অন্য দেশ থেকে আরেকটি দেশে প্রবেশ করে। এবং পরীক্ষা করে তার শরীরে ক’রো’না ‘আ’ক্রা’ন্ত নিশ্চিত হয়। এ পর্যায়কে প্রথম ধাপ বলা হয়েছে।

দ্বিতীয় ধাপ: এই ধাপে আ’ক্রা’ন্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসে যখন তার নিকটাত্মীয় বা সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিরাও আ’ক্রা’ন্ত হন। এটিকেই দ্বিতীয়ধাপ বলে ধরা হয়েছে।

তৃতীয় ধাপ: এই ধাপে আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে একটু বেশি পর্যায়ে ছড়িয়ে যায়। এ পর্যায়ে বেশ অনেক সংখ্যক ব্যক্তি আ’ক্রা’ন্ত হয়ে পড়ে। এ পর্যায়ে শুধু নিকটাত্মীয়ের ভেতর রোগ ছড়ানোটা সীমাবদ্ধ থাকে না। বরং ছড়িয়ে পড়তে থাকে লোকালয়ে। এই ধাপে এখন রয়েছে ইতালি, স্পেন।

চতুর্থ ধাপ: এটি এমন ধাপ যেটিকে খুব খারাপ অবস্থা বলে বিবেচনা করা হয়। এই ধাপে পুরো দেশেই রো’গটি ছড়িয়ে পড়ে। এমন কোনো পয়েন্টকে তখন আর আলাদা করা চলে না। সকল দেশেই তখন এই ম’র’ণ রো’গ ছড়িয়ে পড়তে সক্ষম হয়। এই ধাপের মধ্যে পড়ে চীন।

বাংলাদেশেও আস্তে আস্তে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এটির ভ’য়া’বহতা যে কতখানি গিয়ে ঠেকবে, ক্ষতির মাত্রা কি হবে তা নিয়ে আ’ত’ঙ্ক বিরাজ করছে জনমনে।

যেহেতু ক’রো’না প্র’তি’রোধ রাষ্ট্রের সক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে তাই এই মুহূর্তে জনসচেতনতার বিকল্প আর কিছুই নেই। একমাত্র সচেতনতাই ক্ষ’তির মাত্রা কমাতে সাহায্য করবে। সকলেই সচেতন হোন, সুস্থ থাকুন। নিজে বাঁচুন অন্যকে বাঁচতে সহায়তা করুন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন