করোনাভাইরাস : পেছাল কোপা আমেরিকা

প্রকাশিত: মার্চ ১৮, ২০২০ / ১১:৫৯পূর্বাহ্ণ
করোনাভাইরাস : পেছাল কোপা আমেরিকা

লা লিগা থেকে শুরু করে সব ধরনের ফুটবল এখন বন্ধ। চলতি বছর হচ্ছে না ইউরো ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপও। সারা বিশ্বে ক্রিকেটও বন্ধ। এবার দুঃসংবাদ দিল লাতিন আমেরিকার শীর্ষ ফুটবল সংস্থা কনমেবল। করোনাভাইরাসের কারণে পিছিয়ে গেল লাতিন আমেরিকার সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ প্রতিযোগিতা কোপা আমেরিকা-২০২০।

আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়ায় ১২ দল নিয়ে আগামী ১২ জুন থেকে ১২ জুলাই হওয়ার কথা ছিল কোপা আমেরিকার। কিন্তু তা আর হচ্ছে না। সূচি বদলে আগামী বছর ১১ জুন প্রতিযোগিতটি শুরু হবে বলে নিশ্চিত করেছে কনমেবল।

করোনাভাইরাসের কারণে টুর্নামেন্টটি পেছানোর কথা জানান কনমেবল সভাপতি আলেহান্দ্রো দমিনগেস। তিনি বলেন, ‘এ সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ ছিল না। তবে সব সময় আমাদের খেলোয়াড় ও দক্ষিণ আমেরিকা ফুটবল পরিবারের সব সদস্যের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ব্যবস্থা নিতে হবে। বিশ্বের সবচেয়ে পুরোনো আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতাটি যে ২০২১ সালে আরো শক্তিশালী হয়ে ফিরবে, তাতে কোনো সন্দেহ নেই।

এ ছাড়া আগামী বছর অনুষ্ঠিত হবে ইউরোপিয়ান ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসর ইউরো। গতকাল মঙ্গলবার এক জরুরি বৈঠক করে উয়েফা বিষয়টি জানিয়েছে। চলতি বছর ১২ জুন থেকে ১২ জুলাই পর্যন্ত ইউরোপের মোট ১২টি শহরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল বিশ্বকাপ ফুটবলের পর জনপ্রিয় এই আসরের।

কিন্তু করোনাভাইরাসের কবলে একে একে বন্ধ হয়েছে সব খেলা। আগামী বছর ১১ জুন থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত একই ভেন্যুতে ইউরো আয়োজনের নতুন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

গত সপ্তাহজুড়ে এ টুর্নামেন্টের ভাগ্য নিয়ে অনেক আলোচনা হয়েছে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে নিজেদের ৫৫ সদস্যের মধ্যে ভিডিও কনফারেন্সের পর আগামী বছর ইউরো পিছিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত জানায় উয়েফা।

ইউরো পিছিয়ে যাওয়ায় আগামী বছরের জুন ও জুলাইতে অনুষ্ঠিতব্য অন্য আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টগুলোর ভবিষ্যৎ সংকটে পড়ে যাবে। নেশনস লিগ, অনূর্ধ্ব-২১ চ্যাম্পিয়নশিপ ও প্রথম বিশ্ব ক্লাব কাপ কাছাকাছি সময়ে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন