‘দেশে হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন ২৩১৪ জন’

প্রকাশিত: মার্চ ১৫, ২০২০ / ০২:১৭অপরাহ্ণ
‘দেশে হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন ২৩১৪ জন’

দেশে এখন পর্যন্ত ২৩১৪ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন বলে জানিয়েছেন সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা। তিনি আরো জানান, এখন পর্যন্ত আইসোলেসনে আছেন ১০ জন।

আজ দুপুর বারোটায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান। এসময় তিনি বলেন, যাদেরকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে, তারা এ নির্দেশনা অমান্য করলে বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিকভাবে তাদেরকে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হবে।

হোম কোয়ারেন্টাইন না মানলে কঠিন ব্যবস্থা : করোনা প্রতিরোধে হোম কোয়ারেন্টাইন না মানলে কঠিন ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে মন্তব্য করেছে বাংলাদেশ সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইইডিসিআর।

একইসঙ্গে বিষয়টি হালকা করে দেখা বা অবহেলার সুযোগ নেই বলেও জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

রোববার প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন: ইটালি থেকে দেশে আসা ১৪২ জনকে আশকোনা থেকে প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। সারাদেশে হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন ২ হাজার ৩১৪ জন।

করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে সব ধরণের জনসমাগম এড়িয়ে চলার আহ্বান জানায় প্রতিষ্ঠানটি। বলা হয়, লক্ষণ থাকলে গণপরিবহণ ব্যবহার করে আইইডিসিআরে না আসার আহ্বান। এখানে আসলে করোনা প্রতিরোধ সম্ভব হবে না। বাসা থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

তিনি বলেন: বাংলাদেশে মোট ৫ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। আগের তিন জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরছেন। এখন ২ জন আক্রান্ত আছেন।

অন্যদিকে রোববার সকালে ইটালি থেকে আরও ১৫২ জন দেশে এসেছেন। তাদের এখনও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়নি। তারা হজক্যাম্পে আছেন। তাদের তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে বলেও জানায় আইইডিসিআর।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন