ক’রো’নার দোহাই দিয়ে ছুটি কাটাতে গিয়ে যুবক গ্রে’ফ’তার

প্রকাশিত: মার্চ ১১, ২০২০ / ০৯:৩৪অপরাহ্ণ
ক’রো’নার দোহাই দিয়ে ছুটি কাটাতে গিয়ে যুবক গ্রে’ফ’তার

প্রতিদিন বিশ্ব জুড়ে ক’রো’না ভা’ই’রা’সে আ’ক্রা’ন্তের সংখ্যা বাড়ছে। ভা’ই’রাসটি থেকে রক্ষা পেতে চিকিৎসকরা দিয়েছেন নানান পরামর্শ। তবে এবার ক’রো’না ভা’ই’রাসে কথা বলে অফিস থেকে ছুটিতে থাকতে চেয়েছিলেন এক যুবক। কিন্তু এতে ঘটে গেলো ল’ঙ্কা’কা’ণ্ড, সেই যুবককে নেওয়া হলো জে’লে।

অফিসে না যাওয়ার জন্য বা অফিস থেকে ছুটি কা’টা’নোর জন্য সম্প্রতি এক ব্যক্তি অফিসে ফোন করে বলেন, তিনি ক’রো’না ভা’ই’রা’সে আ’ক্রা’ন্ত হয়েছে। তাই তিনি অফিসে যেতে পারবেন না।

এর এদিকে নিজের ছুটি কা’টাতে অফিসে ক’রো’না দোহাই দেওয়ায় ঘটে গেলো উ’ল্টো’কা’ণ্ড। অফিসে এক কর্মচারীর করোনা ভা’ই’রাস শনা’ক্ত হয়েছে মানে আ’ত’ঙ্কে পড়েছে পুরো অফিস। ফলে কর্তৃপক্ষ স’ত’র্ক থাকতে বেশ কয়েক দিনের জন্য ছুটি দিয়ে দেয় পুরো অফিস।

পরে বিষয়টি চলে আসে পুলিশের নজরে। পুলিশ ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নেমে পড়ের ঘটনার সত্যতা উ’দঘাটনে। ওই ব্যক্তির কাছে জানতে চাওয়া হয়, তিনি কীভাবে ক’রো’না ভা’ই’রা’সে আ’ক্রা’ন্ত?

উত্তরে তিনি বলেন, আমি সম্প্রতি আমি একটি শপিং মলে গিয়েছিলাম এবং সেখানে একজন করোনা ভা’ই’রা’সে আ’ক্রা’ন্ত ব্যক্তি ছিলেন। তাই আমার মনে হয়েছে আমি ক’রো’না ভা’ই’রা’সে আ’ক্রা’ন্ত। শপিং গিয়েছিল এ কথা প্রমাণের জন্য, একটি বাজারের রসিদও দিয়েছিলেন পুলিশের হাতে।

কিন্তু পুলিশ সব কিছু খতিয়ে দেখে বুঝতে পারে তিনি মি’থ্যা কথা বলেছেন এবং তার রসিদও মি’থ্যা। তিনি আসলে নিজে ছুটি কা’টাতে অফিসে ক’রো’না ভাই’রা’সের অ’জুহাত দেখিয়েছিলেন।

পরে পুলিশ তাকে গ্রে’ফ’তার করে জে’লে পাঠিয়ে দেয়। ঘটনাটি ঘটেছে কোভিড-১৯ এর উৎসস্থল চীনের একটি প্রদেশে। যা চীনের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের বরাত দিয়ে প্রচার করেছে ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার অনলাইন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন