ভারতের মন্ত্রী মাইক বাজিয়ে উদ্দাম নাচ নাচলেন, ভিডিও ভাইরাল!

প্রকাশিত: মার্চ ১১, ২০২০ / ১২:১৬পূর্বাহ্ণ
ভারতের মন্ত্রী মাইক বাজিয়ে উদ্দাম নাচ নাচলেন, ভিডিও ভাইরাল!

দু’দিন পরেই উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা। এসময়ে উচ্চস্বরে মাইক বাজিয়ে উদ্দাম নাচে বি’ত’র্কে জড়ালেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী বাচ্চু হাঁসদা। উচ্চমাধ্যমিকের আগে মাইক বাজানো নি’ষি’দ্ধ। সেই নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে একজন মন্ত্রী কীভাবে একাজ করলেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। ঘটনার ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই অ’স্বস্তিতে পড়েছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব।

জানা গেছে, দোল উৎসব উপলক্ষ্যে সোমবার বালুরঘাটের তপন ব্লক কার্যালয়ের প্রাঙ্গণে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানেই উপস্থিত ছিলেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী বাচ্চু হাঁসদা-সহ ব্লক একাধিক রাজনৈতিক ও সরকারি কর্মকর্তারা।

এলাকার ছেলেমেয়েরাও সেই অনুষ্ঠানে শামিল হন। সরকারি নি’ষে’ধাজ্ঞার তোয়াক্কা না করেই উচ্চস্বরে বাজানো হয় মাইক চালানো হয় গান। ছেলেমেয়েদের সঙ্গে গানের তালে উদ্দাম নাচে সামিল হন খোদ মন্ত্রী বাচ্চু হাঁসদা। তাঁর সঙ্গে নাচে শামিল হতে দেখা যায় সরকারি কর্মকর্তাদেরও। সেই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয় বি’ত’র্ক।

সামনেই উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা। সেই কারণে রবিবার থেকে মাইক বাজানো নি’ষি’দ্ধ সরকারিভাবে। সেখানে একজন জনপ্রতিনিধি ও দায়িত্বশীল মন্ত্রী প্রকাশ্যে এই উচ্চস্বরে বাজানোর বিষয়ে সম্মতি দিলেন কীভাবে? নিজে আবার গানের তালে নাচেও শামিল! তা নিয়েই প্রশ্ন তুলছেন সকলে।

তবে এ প্রসঙ্গে বাচ্চু হাঁসদা বলেন, “শুধু কি তপনে মাইক বেজেছে? রাজ্য জুড়ে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও বসন্ত উৎসব বছরে একবার হয়। এই উৎসবে মানুষকে ধরে রাখা যায় না। আমার আমন্ত্রণ ছিল। ব্যক্তিগত অনুষ্ঠান না। আমি ওদের সঙ্গ দিয়েছি মাত্র।”

এ প্রসঙ্গে তৃণমূল জেলা সভাপতি অর্পিতা ঘোষ বলেন, “এটা একদম ঠিক নয়। সামনে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা। সেখানে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে মাইক বাজানো যাবে না। আমার মনে হয় নিয়ম প্রত্যেকের জন্য সমান। নিয়ম কারও জন্য পাল্টে যেতে পারে না, তিনি যেই হোন।” প্রশাসন বিষয়টি খতিয়ে দেখবে বলেও জানান তিনি।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন