পদ্মায় বসলো ২৬তম স্প্যান, দৃশ্যমান ৩৯০০ মিটার

প্রকাশিত: মার্চ ১০, ২০২০ / ১০:৩৮পূর্বাহ্ণ
পদ্মায় বসলো ২৬তম স্প্যান, দৃশ্যমান ৩৯০০ মিটার

পদ্মা সেতুর ২৬তম স্প্যান বসানো হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে স্প্যানটি বসানো হয়। সেতুর জাজিরা প্রান্তের ২৮ ও ২৯ নম্বর খুঁটির ওপর এটি বসানোর হয়েছে।

এতে সেতুর ৩ হাজার ৯০০ মিটার দৃশ্যমান হয়েছে।

এর আগে জাজিরা ও মাওয়া প্রান্তে বিছিন্নভাবে আরও ১২টি স্প্যান বসানো হয়েছে। চলতি বছরের জুলাইয়ের মধ্যে ৪২টি পিলারের ওপর ৪১টি স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

এর আগে সোমবার মুন্সীগঞ্জের কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ২৬তম স্প্যানটি নিয়ে ভাসমান ক্রেনে জাজিরার উদ্দেশ্যে আনা হয়েছিল।

নির্ধারিত পিলার ২৮ ও ২৯ বরাবর অবস্থান নেয়। এরপর গতকালের কাজ শেষ করা হয়। মঙ্গলবার সকাল থেকেই শ্রমিক ও প্রকৌশলীরা স্প্যানটি পিলারের ওপর বসানোর কাজ শুরু করেন।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আবদুল কাদের জানান, সোমবার মুন্সীগঞ্জের কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ২৬তম স্প্যানটি নিয়ে ভাসমান ক্রেনে জাজিরার উদ্দেশ্যে আনা হয়। আজ সকালে স্প্যানটি পিলারে বসানো হয়।

১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের স্প্যানটি বসানোয় সেতুর ৩৯০০ মিটার দৃশ্যমান হয়েছে। চলতি বছরের জুলাইয়ের মধ্যে ৪২টি পিলারের ওপর ৪১টি স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে। যার ২৫টি বসে গেছে। আগামী জুলাইয়ে সব স্প্যান বসে যাওয়ার কথা রয়েছে।

চলতি মাসের প্রথম স্প্যানটি বসে ১৪ জানুয়ারি। এর আগে গত বছরের ১১ ডিসেম্বর পদ্মা সেতুর ১৮তম স্প্যান ও ১৮ ডিসেম্বর বসানো হয় ১৯তম স্প্যান এবং ৩০ ডিসেম্বর বলে ২০তম স্প্যানটি।

সেতুর রোডওয়ে স্ল্যাব ও রেলওয়ে স্ল্যাবসহ অন্যান্য কাজ সিডিউল অনুযায়ী চলছে।

দেশের সর্ববৃহৎ সেতুটির মূল অংশের নির্মাণকাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে সেতুর কাজ শুরু হয়। ৬ দশমিক ১৫০ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের দ্বিতল সেতুটি কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন