নাতির মা’র’ধরে হাসপাতালে ভর্তি ৭০ বছরের বৃদ্ধা!

প্রকাশিত: মার্চ ৮, ২০২০ / ০৯:৪২অপরাহ্ণ
নাতির মা’র’ধরে হাসপাতালে ভর্তি ৭০ বছরের বৃদ্ধা!

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলায় নাতির মা’র’ধ’রে আ’হ’ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৭০ বছরের এক বৃদ্ধা। তার নাম জয়গুন বেগম।

শুক্রবার (৬ মার্চ) বিকালে উপজেলার চর হরিরামপুর ইউনিয়নের মধ্য শালিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তিনি ওই গ্রামের মৃ’ত তোতা বেপারীর স্ত্রী।

আ’হ’ত জয়গুন বেগম জানান, তার ছোট ছেলে তৌহিদ পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া জমিতে ঘর তুলতে গেলে বড় ছেলে শাজাহান বেপারী, নাতি সুমন, মেয়ে স্বর্ণা আক্তার ও পুত্রবধূ নার্গীস আক্তার বাধা দেয়। এতে তাদের মধ্যে প্রথমে ঝ’গ’ড়া হয়।

পরে একপর্যায়ে মা’রা’মা’রিতে রূপ নেয়। এ সময় ছোট ছেলে তৌহিদকে বাঁচাতে বৃদ্ধা এগিয়ে আসলে নাতি সুমন তার তলপেটে লা’থি দেয়। এতে গুরুতর আ’হ’ত হয় বৃদ্ধা জয়গুন বেগম। পরে তাকে চরভদ্রাসন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এ ব্যাপারে বৃদ্ধার বড় ছেলে শাহজাহান বেপারী বলেন, জমি সং’ক্রান্ত বি’রো’ধের জেরে সুমনের সঙ্গে ঝা’মে’লা হয়। এ সময় ঠেকাতে আসলে মায়ের গায়ে হয়ত আ’ঘা’ত লাগতে পারে। কিন্তু আমরা ইচ্ছাকৃতভাবে কেউ তাকে মা’র’ধর করিনি।

এ ঘটনায় তার ছোট ছেলে তৌহিদ বাদী হয়ে চরভদ্রাসন থানায় অ’ভি’যোগ দায়ের করেন।

চরভদ্রাসন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজনীন খানম সাংবাদিকদের জানান, মারামারির বিষয়ে উভয় পক্ষই শুক্রবার রাতে পাল্টাপাল্টি অ’ভি’যো’গ দায়ের করেছেন। ঘটনার তদন্তপূর্বক দো’ষী’দের বি’রু’দ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন