লিটনের দারুণ শতকের পর বৃষ্টির হানা

প্রকাশিত: মার্চ ৬, ২০২০ / ০৬:৩৪অপরাহ্ণ
লিটনের দারুণ শতকের পর বৃষ্টির হানা

প্রথম ওয়ানডেতে দারুণ সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন লিটন দাস। দ্বিতীয়টিতে হন ব্যর্থ। দুর্ভাগ্যজনকভাবে ফেরেন রানআউট হয়ে। তবে তৃতীয়টিতে আর ভুল করলেন না তিনি। দারুণ ব্যাটিংয়ে আরেকবার সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন ডানহাতি এই ওপেনার। ইনিংসের ৩৩তম ওভারের পঞ্চম বলে উইলিয়ামসকে অফসাইডে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে সেঞ্চুরি স্পর্শ করেন তিনি। ১১৪ বলে তাঁর শতরানের ইনিংসটি সাজানো ১৩ বাউন্ডারি দিয়ে। এটি তাঁর ক্যারিয়ারের তৃতীয় সেঞ্চুরি।

এরই মধ্যে হাফসেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান তামিম ইকবালও। তিনিও সেঞ্চুরির পথে এগিয়ে যাচ্ছেন। দুই ওপেনারের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ছুটছিল বাংলাদেশ। কিন্তু এতেই বাগড়া বাধে বৃষ্টি। ৩৪তম ওভার চলার সময়ে বৃষ্টিতে বন্ধ হয়ে যায় ম্যাচ।

বৃষ্টির আগ পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ বিনা উইকেটে ১৮২। লিটন ১০২ রানে অপরাজিত এবং তামিম অপরাজিত ৭৯ রানে।

সিলেটের আকাশ সকাল থেকে কিছুটা মেঘলা। উইকেটে বাড়তি বাউন্স পাওয়ার আশায় টস জিতে আগে বোলিং নিয়েছে জিম্বাবুয়ে। তবুও বাংলাদেশের ছন্দ ভাঙতে পারেননি সফরকারী বোলাররা। আগে ব্যাট করতে নেমে তামিম-লিটনের ব্যাটে ভালো শুরু করে বাংলাদেশ। ইনিংসের প্রথম বল থেকেই দেখেশুনে খেলছেন তাঁরা। পাওয়ার প্লেতে দুই ওপেনার মিলে তোলেন ৫৩ রান।

এরপর ৫৪ বলে হাফসেঞ্চুরি স্পর্শ করেন লিটন। ক্যারিয়ারে এটি তাঁর চতুর্থ ফিফটি। অন্যদিকে ৫০ ছুঁতে তামিমের লেগেছে ৬০ বল।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আজ শুক্রবার সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে দিয়ে অধিনায়কত্বকে বিদায় জানাতে যাচ্ছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। অধিনায়কের বিদায়ের দিনই অভিষেক হয়েছে মোহাম্মদ নাঈম ও আফিফ হোসেনের। টি-টোয়েন্টিতে দুজনের অভিষেক আগেই হয়েছে। এবার ৫০ ওভারের ক্রিকেটে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করবেন এ তরুণ দুই ক্রিকেটার।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই ম্যাচের একাদশে চার পরিবর্তন আনা হয়েছে। একাদশে নেই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। বাদ পড়েছেন শফিউল ইসলাম, আল-আমিন হোসেন ও নাজমুল হোসেন শান্ত। তাঁদের বদলে একাদশে ফিরেছেন পেসার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ও মুস্তাফিজুর রহমান।

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম দুটিতে জয় নিয়ে এরই মধ্যে ২-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আজ জিতলেই ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ ঘরে তুলবে লাল-সবুজের দল।

বাংলাদেশ : তামিম ইকবাল, লিটন দাস, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, আফিফ হোসেন, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), তাইজুল ইসলাম ও মুস্তাফিজুর রহমান।

জিম্বাবুয়ে : তিমিসেন মারুমা, সিকান্দার রাজা, ক্রেইগ আরভিন, তিনাশে কামুনহুকামওয়ি, ওয়েসলি মাদভেরে, কার্ল মুম্বা, রিচমন্ড মুতুম্বামি (উইকেটরক্ষক), ব্রেন্ডন টেলর, ডোনাল্ড টিরিপানো, চার্লটন টিসুমা ও শন উইলিয়ামস।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন