নিজের শরীরে করোনার অপরীক্ষিত ভ্যাকসিন নিলেন চীনের চিকিৎসক

প্রকাশিত: মার্চ ৫, ২০২০ / ১০:৩৯পূর্বাহ্ণ
নিজের শরীরে করোনার অপরীক্ষিত ভ্যাকসিন নিলেন চীনের চিকিৎসক

চীনের একজন চিকিৎসক করোনাভাইরাসের অপরীক্ষিত ভ্যাকসিন নিজের শরীরে দিয়ে সারাবিশ্বের মানুষকে অবাক করে দিয়েছেন। এদিকে চীনের বিজ্ঞানীরা করোনাভাইরাস মোকাবিলার পথ খুঁজে বের করার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন। কয়েকমাস ধরেই ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের জন্য পরীক্ষা চলছে এবং প্রাণীদের দেহে এর প্রভাব লক্ষ্য করার চেষ্টা অব্যাহত আছে।

কিন্তু ডা. চেন উই কয়েকধাপ এগিয়ে এসে নিজের শরীরেই এই ভ্যাকসিন নিয়ে তার প্রভাব দেখার চেষ্টা করছেন। ভ্যাকসিন নেওয়ার একটি ছবি এরই মধ্যে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনগুলোতে প্রকাশ পাচ্ছে।

তাতে দেখা যায়, ৫৪ বছর বয়সী চেন উই দৃঢ় মনোবলে দাঁড়িয়ে আছেন। সাদা পোশাকের এক ব্যক্তি তার শরীরে ভ্যাকসিনটি দিয়ে দিচ্ছে। জানা গেছে, আলোকচিত্রীদের সামনেই ঘটেছে ঘটনাটি।

বিশ্বখ্যাত এপিডেমিওলজিস্ট এবং চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) মেজর জেনারেল এটি দেখাতে চেয়েছিলেন যে, চীন করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে দ্রুত এগিয়ে চলেছে। ওই ভ্যাকসিন তার দলের আরো পাঁচজনের শরীরে দেওয়া হয়েছে বলেও ল্যাডবাইবেল ডটকমের এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

চীনের সেনাবাহিনীর সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডলে ওই ছবি প্রকাশ করা হয়। চীনের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যমগুলোতেও সেই প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছে। তাতে বলা হয়, এখনো ভ্যাকসিনটি পরীক্ষার পর্যায়ে আছে। করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াইয়ে সব রকম চেষ্টা চীন সরকার চালিয়ে যাচ্ছে। শক্তিশালী প্রযুক্তিগত সহায়তা প্রদানের জন্য চীন সরকারের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। ভ্যাকসিনটি কার্যকরভাবে প্রয়োগের জন্য নিরলসভাবে কাজ চলছে।

এর আগে ২০১৪ সালে ইবোলার ভ্যাকসিন সবার আগে আবিষ্কার করে বিশ্বব্যাপী আলোচনার শিরোনামে চলে আসেন চেন উই। ২০০০ সালে সার্স ছড়িয়ে পড়ার মুহূর্তেও তার অবদান রয়েছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন