ভারতে মু’সলিমবি’দ্বেষী না’গরিকত্ব আইন নিয়ে স’র্বোচ্চ আ’দালতে জা’তিসংঘ

প্রকাশিত: মার্চ ৪, ২০২০ / ০২:১০অপরাহ্ণ
ভারতে মু’সলিমবি’দ্বেষী না’গরিকত্ব আইন নিয়ে স’র্বোচ্চ আ’দালতে জা’তিসংঘ

ভারতে বহুল বি’তর্কি’ত সং’শোধিত না’গরিকত্ব আ’ইন (সিএএ) নিয়ে ভারতের স’র্বোচ্চ আ’দালতের হ’স্তক্ষেপ কামনা করে ভারতের সু’প্রিম কো’র্টে একটি পি’টিশন দাখিল করেছে জা’তিসংঘ।

সং’স্থাটির মা’নবাধিকার বি’ষয়ক হা’ইকমিশনার কা’র্যালয় বি’তর্কি’ত আ’ইনটিকে সাং’বিধানিক বৈ’ধতা মা’মলায় পক্ষভুক্ত করার আবেদন দাখিল করেছে। জা’তিসংঘের এমন পদক্ষেপ ন’জিরবিহীন ও এর মাধ্যমে মো’দি স’রকারের বি’ড়ম্বনা বেড়েছে বলে ভা’রতীয় সং’বাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে। খবর এনডিটিভির।

সিএএ বি’রোধী আ’ন্দোলনের এমনিতেই বেশ চা’পের মধ্যে রয়েছে নরেন্দ্র মো’দির নে’তৃত্বাধীন বিজেপি স’রকার। এর মধ্যেই সু’প্রিম কো’র্টের মা’মলাগুলোয় তৃতীয় পক্ষ হওয়ার আবেদন দাখিল করে জা’তিসংঘের মা’নবাধিকার প’রিষদ। বি’ষয়টি জানার পরই তী’ব্র প্র’তিক্রিয়া জানিয়েছে ভারত।

দেশটির প’ররা’ষ্ট্র ম’ন্ত্রণালয় এক বি’বৃতিতে জানিয়েছে, সং’শোধিত না’গরিকত্ব আ’ইন ভারতের অভ্যন্তরীণ বি’ষয় এবং এটি আ’ইন প্রণয়নকারী সং’সদের সার্বভৌম অধিকারের স’ঙ্গে সম্পৃক্ত।

দেশটির প’ররা’ষ্ট্র ম’ন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবীশ কুমার বলেছেন, জা’তিসংঘের মা’নবাধিকার বি’ষয়ক হা’ইকমিশনার মিশেল বাখেলেটের কার্যালয় জে’নেভায় অবস্থিত ভা’রতীয় স্থায়ী মি’শনকে সোমবার সন্ধ্যায় আবেদনটির বি’ষয়ে অবহিত করেছে। রবীশ কুমার বলেন, সিএএ ভার’তের অভ্যন্তরীণ বি’ষয়। আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, ভারতের সার্বভৌমত্বের স’ঙ্গে জড়িত কোনও ইস্যুতে বিদেশি কোনও পক্ষের হ’স্তক্ষেপের অ’ধিকার নেই।

ভারতের প’ররা’ষ্ট্র ম’ন্ত্রণালয় আরও জানান, ভা’রতের প্র’তিবেশী দেশগুলোতে ধ’র্মীয় সং’খ্যালঘুদের ও’পর অ’ত্যাচার চলছে। তাদের আশ্রয় দেয়া ভা’রতের স’নাতন অধিকার। এ নিয়ে জা’তিসংঘের মা’নবাধিকার ক’মিশন কিছুতেই হ’স্তক্ষেপ করতে পারে না।

ইতোমধ্যে না’গরিকত্ব সং’শোধনী বিল আইন আকারে পাস হওয়ার পর এর সাং’বিধানিক বৈধতাও খতিয়ে দেখছে সু’প্রিম কো’র্ট। ফলে এখানে জা’তিসংঘের নাক গ’লানো কাম্য নয়। বরং তাদের উচিত সম্মান প্রদর্শন করা।

উল্লেখ্য, ভা’রতে মু’সলিমবিদ্বেষী না’গরিকত্ব সং’শোধনী আইন (সিএএ)-এর বি’রুদ্ধে শুরু থেকেই প্র’তিবাদ জানিয়ে আসছে দেশটির মু’সলিম তথা সুশীল জনগণ। এ নিয়ে স’ম্প্রতি দিল্লিতে মু’সলিমবি’রোধী সহিং’সতায় ৪৩ জনের প্রা’ণহা’নি হয়েছে। এখনও ড্রে’নে, নালায় পাওয়া যাচ্ছে লা’শ। মো’দী স’রকারের এমন সা’ম্প্রদায়িক মনোভাবকে ধি’ক্কার জানিয়েছেন বি’শ্ব মোড়লরা।

এরইমধ্যে দিন কয়েক আগে ভারত সফর করে গেছেন মা’র্কিন প্রে’সিডেন্ট ডো’নাল্ড ট্রা’ম্প। দিল্লির স’হিং’সতাকে সা’ম্প্রদায়িক দা’ঙ্গা নয়, ক্ষমতাসীন বিজেপি স’রকারের রা’ষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত উ’গ্র হি’ন্দুত্ববা’দীদের ‘প’রিকল্পিত গণহ’ত্যা’ বলে দা’বি করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যম’ন্ত্রী তৃ’ণমূল কং’গ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন