চালো হল সৌদি আরবের ওয়ার্ক ভিসা

প্রকাশিত: মার্চ ১, ২০২০ / ১২:১০পূর্বাহ্ণ
চালো হল সৌদি আরবের ওয়ার্ক ভিসা

সৌদি কর্তৃপক্ষ পরিস্কারভাবে জানিয়েছেন যে, ওয়ার্ক ভিসা, বিজনেস ভিজিট ভিসা, ফ্যামিলি ভিজিট ভিসা – এসকল ভিসা বহনকারী ব্যক্তিদের সৌদি আরবে প্রবেশে কোনপ্রকার নিষেধাজ্ঞা থাকছে না।

গত বৃহস্পতিবারে সৌদি আরবে প্রবেশের উপর যে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে, তার মধ্যে পড়বেন না উল্লেখিত ভিসাধারীরা। ওয়ার্কিং ভিসা, বিজনেস ভিসা, ফ্যামিলি ভিসা – এসকল ভিসা বহনকারী ব্যক্তিরা সৌদি আরবে প্রবেশের নিষেধাজ্ঞায় পড়বেন না।

এছাড়াও, সৌদি আরবের ডিরেক্টর জেনারেল অফ পাসপোর্ট (জাজাওয়াত) এক ঘোষণায় জানিয়েছে, মাল্টিপল ভিসাধারীরা যদি তাদের সৌদি আরবে প্রবেশের পূর্বে ২ সপ্তাহের মধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কোন দেশ ভ্রমন না করে থাকেন, তবে স্বাভাবিক প্রক্রিয়াতেই তারা সৌদি আরবে প্রবেশ করতে পারবেন।

সৌদি আরবের নতুন ভ্রমন নিষেধাজ্ঞা অনুযায়ী, গালফ স্টেটস কাউন্সিল (জিসিসি) এর কোন দেশের নাগরিকেরা সৌদি আরবে প্রবেশ করতে হলে নিজ দেশের পাসপোর্ট ব্যবহার করতে হবে, শুধুমাত্র ন্যাশনাল আইডি কার্ড দিয়ে সৌদি আরবে প্রবেশ করতে পারবে না।

তবে, যারা এই ঘোষণার আগে ন্যাশনাল আইডি কার্ড ব্যবহার করে সৌদি আরবে প্রবেশ করেছিলেন, তারা নিজ দেশে ফেরার জন্য আইডি কার্ড ব্যবহার করেই সৌদি আরব ত্যাগ করতে পারবেন।

এছাড়াও করোনাভাইরাসের ছড়ানো রোধ করার জন্য বেশকিছু দেশ থেকে ট্যুরিস্ট ভিসা সাসপেন্ড করেছে সৌদি আরব, একইসাথে এসকল দেশের এয়ারলাইন্স ক্রুদের প্রবেশের উপর জারি করা হয়েছে নিষেধাজ্ঞা।

এই দেশগুলো হলো -চায়না, চাইনিজ তাইপেই, হংকং, ইরান, ইটালি, সাউথ কোরিয়া, ম্যাকাও, জাপান, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, ইরাক, ফিলিপাইনস, সিঙ্গাপুর, ইন্ডিয়া, লেবানন, সিরিয়া, ইয়েমেন, কাজাখাস্তান, উজবেকিস্তান, সোমালিয়া, এবং ভিয়েতনাম।

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ছে সারা বিশ্বজুড়ে, তাই সৌদি আরবে এই ভাইরাসের অনুপ্রবেশ ঠেকাতে সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করছে সৌদি সরকার।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন