পাকিস্তানে হিন্দুদের পাশে ইমরান খান, অথচ ভারতে মোদি চুপ

প্রকাশিত: ফেব্রু ২৭, ২০২০ / ১১:৩৬অপরাহ্ণ
পাকিস্তানে হিন্দুদের পাশে ইমরান খান, অথচ ভারতে মোদি চুপ

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে স’হিং’স’তার আ’গু’নে পুড়ছে ভারতের রাজধানী নয়দিল্লি। গত কয়েকদিন ধরে চলা বিক্ষোভে উ’গ্র’বাদীদের হা’ম’লায় প্রায় ৩৭ জনের নি’হ’তের খবর জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো। যাদের বেশিরভাগই মুসলিম।

বেছে বেছে মুসলিমদের ওপরই হা’ম’লা চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছে বিবিসি ও আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা বিষয়ক মার্কিন কমিশন (ইউএসসিআইআরএফ)।

মুসলিমদের বি’রু’দ্ধে এই স”হিং’সতা থামাতে বিজেপি সরকার ব্যর্থ হয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা। এমনকি অনেক বিজেপি নেতা এতে বরং উ’স্কা’নি’ও দিয়েছে।

এছাড়া ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও স’হিং’সতা শুরু হওয়ার ৩৯ ঘণ্টা পর সবাইকে শান্ত থাকার আহবান জানিয়েছেন।

অন্যদিকে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মোদির ঠিক উল্টো কাজটিই করলেন। সিএএ বিরোধী আ’ন্দো’ল’নকে কেন্দ্র করে ভারতের দিল্লিতে মুসলিমদের উপর হা’ম’লার জে’রে পাকিস্তানে কোনো সংখ্যালঘু বা তাদের উপাসনালয়ে হা’ম’লা হলেই তার বি’রু’দ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুঁ’শি’য়ারি দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) এক টুইট বার্তায় ইমরান খান বলেন, ‘আমি আমাদের নাগরিকদের স’ত’র্ক করে দিতে চাই যে, আমাদের সং’খ্যা’লঘু নাগরিক বা তাদের উপাসনালয়ের উপর যে কোন হা’ম’লা’চেষ্টাকে কঠোরভাবে দ’ম’ন করা হবে।

আমাদের সংখ্যালঘুরা অন্যদের মতোই সমান অধিকার নিয়ে এখানে বসবাস করে।’

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন