টাকা চু’রি : নি’র্যা’তন সইতে না পেরে আত্মহ’ত্যা করল গৃহবধূ

প্রকাশিত: ফেব্রু ২৭, ২০২০ / ০৯:১২অপরাহ্ণ
টাকা চু’রি : নি’র্যা’তন সইতে না পেরে আত্মহ’ত্যা করল গৃহবধূ

যশোরের বাঘারপাড়ায় টাকা চু’রির ঘটনায় অ’প’মান ও নি’র্যা’তন সইতে না পেরে শিল্পী খাতুন (৩২) নামের এক গৃহবধূ আত্ম’হ’ত্যা করেছেন বলে অ’ভি’যোগ উঠেছে।

নি’হ’তের পরিবার বলছেন, আত্ম’হ’ত্যার আগে নি’র্যা’তন করা হয়েছিল তাঁকে। এ ঘটনায় এক দম্পতির বিরুদ্ধে থানায় অ’ভি’যোগ করেছেন তার ভাই রিপন হোসেন।

নিহত শিল্পী খাতুন উপজেলার চেচুয়াখোলা গ্রামের দিনমজুর আব্দুল মালেকের স্ত্রী।

শিল্পীর স্বামী আব্দুল মালেক জানান, আজ বৃহস্পতিবার সকালে তিনি প্রতিদিনের মতো মাঠে কৃষি কাজ করছিলেন। সকাল ১০টার দিকে খবর আসে তার স্ত্রী আ’ত্ম’হ’ত্যা করেছে।

এ সময় দ্রুত বাড়িতে ছুটে গিয়ে তিনি দেখতে পান বাথরুমের আড়ার সাথে ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ঝুলে আছে তার স্ত্রী। দ্রুত হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃ’ত ঘোষণা করেন।

এদিকে গৃহবধূ শিল্পী খাতুনের গলায় রশির দাগ দেখা গেলেও ঠোঁট ও মাথায় আ’ঘা’তের চিহ্ন পাওয়া গেছে। নাক ও মুখ দিয়েও ঝ’র’ছিল র’ক্ত। যে কারণে স্থানীয় অনেকেই ধারনা করছেন আ’ত্ম’হ’ত্যার আগে তাকে শারিরীকভাবে নি’র্যা’তন করা হয়েছিল।

এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকভাবে তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক। এমনকি ওই চিকিৎসক মিডিয়ায় তাঁর নাম প্রকাশ করতে নিষেধ করেন।

এ ব্যাপারে তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করতে বলেন। তবে ওই কর্মকর্তা অফিসিয়াল কাজে যশোর শহরে অবস্থান করছিলেন। এর আগে হাসপাতালে আনার আগেই শিল্পী খাতুনের মৃ’ত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন জরুরি বিভাগের ওই চিকিৎসক।

স্বজনরা জানান, শিল্পী খাতুন দেবর আব্বাস উদ্দিনের বাড়িতে নিয়মিত টেলিভিশন দেখতে যেতেন। ওই ঘর থেকে কোনো এক সময় ১৬ হাজার টাকা চু’রি হয়। এতে আব্বাস দম্পতি দায়ী করে শিল্পী খাতুনকে। শিল্পী বরাবরই টাকা চু’রির কথা অস্বীকার করে আসছিলেন।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে শিল্পীকে ধর্মগ্রন্থ স্পর্শ করানোসহ চালপড়া খাওয়ানো হয়। এসব বিষয় নিয়ে শারিরীক নি’র্যা’ত’নের শি’কা’র হন ওই গৃহবধূ। এক পর্যায়ে অ’প’মা’ন ও নি’র্যা’তন সহ্য করতে না পেরে আ’ত্ম’হ’ত্যার পথ বেছে নেন শিল্পী খাতুন।

বাঘারপাড়া থানার এএসআই সঞ্জয় কুমার জানান, ‘এ ঘটনায় আব্বাস উদিন ও তার স্ত্রী ঝর্না খাতুনের নামে অ’ভি’যো’গ দায়ের করেছে মৃতের ভাই রিপন হোসেন।’

এ ব্যাপারে বাঘারপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) রিপন বালা জানান, ময়’না’তদন্তের জন্য লা’শটি যশোর আড়াইশ শয্যা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন