সৌম্য-প্রিয়ন্তির প্রেমের গল্প

প্রকাশিত: ফেব্রু ২৬, ২০২০ / ০২:০০পূর্বাহ্ণ
সৌম্য-প্রিয়ন্তির প্রেমের গল্প

জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার সৌম্য সরকার বিয়ে করছেন বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি)। বিয়ের আগের দিন মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৪টায় নিজের ভেরিফাইড পেজে প্রায় ৬ মিনিটের একটি ভিডিও ছেড়েছেন সৌম্য সরকার।

ভিডিওতে নিজেদের পরিচয়, প্রেমের শুরুসহ একে অন্যের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন এই ক্রিকেটার ও তার হবু স্ত্রী প্রিয়ন্তি দেবনাথ পূজা। ভিডিওর নাম দিয়েছেন ‘না বলা গল্প’।

ভিডিওটিতে বেশ হাস্যোজ্জ্বলভাবে ভক্তদের সামনে আসেন এ নবদম্পতি। মন খুলে কথা বলেন নিজেদের ব্যাপারে। জানান নিজেদের প্রথম ভালোলাগা, ভালোবাসাসহ অনেক কথা।

সৌম্য-প্রিয়ন্তির মুখেই শোনা যাক সেই গল্প-

প্রিয়ন্তি দেবনাথ পূজা: আমার বোনের রিসিপশনের দিন ও আমাকে প্রপোজ করে। একদম ভোরবেলা, ভোর ৪টা ১৪-তে সে আমাকে প্রপোজ করে। (সৌম্য জানান সালটা ছিল ২০১৬। তখন প্রিয়ন্তি বলে ওঠেন, ‘ও আপনার মনে আছে? আমি আপনাকে পরীক্ষা করছিলাম!’)

প্রথম দিকে আমার খেলা সম্পর্কে খুবই অল্প ধারণা ছিল। আমার সঙ্গে খেলা নিয়ে সব সময় একটা জিনিসই আলোচনা হতো। যখনই সে ভালো কিছু অর্জন করে আসত মাঠ থেকে, সেটা আমার সঙ্গে শেয়ার করত। আর চিঠি লেখার ব্যাপারটা তখন থেকেই শুরু হয়।

যখন তার সঙ্গে প্রথম দেখা হয়, তখন আমার হাতে ছোট একটা স্ট্যাচু ছিল, নেপাল থেকে এনেছিলাম। তখন আমি ভাবলাম, ওকে এটা দেই। পরেরবার যখন তার সঙ্গে আমার দেখা হলো, সে আমাকে অনেক চকলেট দেয়। এরপর লিপস্টিকস দেয়, কারণ আমি লিপস্টিক ভালোবাসি।

সে খুবই সুইট ছিল। আমাদের মধ্যে সে রকম ঝগড়া হয় না। ঝগড়া এখন পর্যন্ত বেশিক্ষণ টেকেনি। ঝগড়া হয়, একটু পর ঠিক হয়ে যায়।

সৌম্য সরকার: সে যখনই আসে, আশা করে, আমি সঙ্গে সঙ্গে বলব তোমাকে অনেক সুন্দর লাগছে। আমি তা কখনোই বলি না তাকে। এই জিনিসিটা নিয়ে সে সারক্ষণ আমার সঙ্গে কথা বলতেই থাকে।

প্রিয়ন্তি দেবনাথ পূজা: সামনা সামনি দেখার আগ পর্যন্ত সব সময় ছবিতেই দেখা হয়েছে। সামনে যখন আমি তাকে দেখি, এটা পুরোপুরি ভিন্ন ছিল। কারণ সামনা সামনি সে হ্যান্ডসাম। আর সে লম্বা, এটা আমার কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

সে ভালো মানুষ। (সৌম্যকে উদ্দেশ্য করে- ‘আমিও তো ভালো, একটু ভালো কথা তো বলতে হয় মাঝেমধ্যে।’)

আর অন্যতম একটা গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হচ্ছে, আমার ওর প্রতি ভালো লাগার শুরুটা হচ্ছে, সে তার মাকে ভালোবাসে- এটা দেখার পর। এটা আমার হৃদয়কে ছুঁয়ে যায়। যে তার মাকে এত বেশি ভালোবাসে, সে তার জীবনসঙ্গীকে আরও বেশি ভালোবাসবে, রেসপেক্ট করবে। এটা আমাকে তার প্রতি খুবই আকর্ষণ করেছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন