মৃ’ত্যুবরণ করলেন ‘মিসরের সাবেক স্বৈ’রশা’সক হোসনি মোবারক’

প্রকাশিত: ফেব্রু ২৫, ২০২০ / ০৬:২০অপরাহ্ণ
মৃ’ত্যুবরণ করলেন ‘মিসরের সাবেক স্বৈ’রশা’সক হোসনি মোবারক’

মিসরের সাবেক স্বৈ’র’শা’স’ক হোসনি মোবারক মৃ’ত্যু’বরণ করেছেন। ৯১ বছর বয়সে মঙ্গলবার কায়রোর একটি হাসপাতালে মা’রা যান তিনি।

মিসরের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের বরাতে আল জাজিরা ও ডেইলি সাবাহ জানিয়েছে, গত শনিবার হোসনি মোবারকের অ’স্ত্রো’প’চা’র করা হয়েছিল। এর কয়েক দিন পরই মৃ’ত্যু’ব’রণ করেন দেশটির সাবেক এ স্বৈ’র’শা’সক।

হোসনি মোবারক ১৯২৮ সালের ৪ই মে জন্মগ্রহণ করেন। তার আসল নাম মুহাম্মদ হোসনি সাইদ মুবারাক। তার বাবা ছিলেন বি’চা’র মন্ত্রণালয়ের একজন ইন্সপেক্টর।

৯১ বছর বয়সী হোসনি মোবারক ১৯৮১ সালে আনোয়ার সাদাত নিহত হওয়ার পর মিসরের প্রেসিডেন্ট হন। টানা তিন দশকের বেশি সময় তিনি মিসর শা’স’ন করেন।

২০১১ সালের জানুয়ারিতে শুরু হওয়া ১৮ দিনের গ’ণবি’প্লবে ওই বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি ক্ষমতাচ্যুত হন মোবারক। বি’প্ল’বের দিনগুলোতে তার নির্দেশে ২৩৯ বি’ক্ষো’ভ’কারী নিরাপত্তা বা’হিনীর গু’লি’তে নি’হ’ত হন।

বি’ক্ষো’ভ’কা’রী হত্যার নির্দেশদাতা হিসেবে ২০১২ সালে নিম্ন আদালত হোসনি মোবারককে যা’ব’জ্জীবন কা’রা’দণ্ড দিয়েছিল। কিন্তু ওই রায়ের বিরুদ্ধে দুইবার উচ্চ আদালতে আপিল করেন মোবারক।

বিপ্লবের দিনগুলোতে নিহতদের স্বজনরা আপিল আদালতের রায়ে অস’ন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তারা ওই গ’ণ’হ’ত্যার জন্য মোবারকের পাশাপাশি বর্তমান প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আস-সিসিরও বি’চার দাবি করেছেন।

বর্তমান প্রেসিডেন্ট সিসি ওই সময় (হোসনি মোবারক শা’সনামলে) সেনা গোয়েন্দা সংস্থার প্রধান ছিলেন।

পরবর্তীতে দেশটির প্রথম নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মাদ মুরসি জেনারেল সিসিকে সেনাপ্রধান পদে নিয়োগ দেন এবং ২০১৩ সালের আগস্টে সিসির হাতেই ক্ষ’ম’তাচ্যুত হন তিনি।

সরকারি তহবিল তসরুফের অ’ভি’যোগে এরই মধ্যে তিন বছরের কারাদণ্ড ভোগ করেছেন হোসনি মোবারক।

সাবেক এই এক’নায়কের ‘বিরু’দ্ধে বি’প্লব-পরবর্তী দিনগুলোতে আরও বহু অ’ভি’যোগ আনা হয়েছিল। সেসব অভিযোগের প্রায় সবগুলোতে তিনি নিজের শা’স’নামলে স্থাপিত বিচার বিভাগের কাছ থেকে বেকসুর খালাস পান।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন