ভাই-বোন গোসল করতে গিয়ে ফিরল লা’শ হলো

প্রকাশিত: ফেব্রু ২৫, ২০২০ / ১২:০৬পূর্বাহ্ণ
ভাই-বোন গোসল করতে গিয়ে ফিরল লা’শ হলো

পটুয়াখালীতে গোসল করতে গিয়ে আরাফাত হোসেন ঘরামি (১১) ও জান্নাতুল মীম (১২) নামে দুই ভাই-বোন পানিতে ডুবে মা’রা গেছে।

সোমবার দুপুর ২টার দিকে পটুয়াখালী সদর উপজেলার কমলাপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ ধরান্দির বলইকাঠি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নি’খোঁজ হওয়ার ছয় ঘণ্টা পর নদী থেকে তাদের লা’শ উ’দ্ধার করা হয়েছে। কয়েক দফা অ’ভি’যান চালিয়ে স্থানীয় বলইকাঠি নদী থেকে বরিশাল ডুবুরি দল ও স্থানীয়রা ওই দুই শিশুর লা’শ উ’দ্ধার করে।

নিহত দুই শিশু সম্পর্কে চাচাতো ভাই-বোন। আরাফাত দক্ষিণ ধরান্দি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণি ও মীম একই বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী।

স্থানীয় কামাল মৃধা জানান, সোমবার দুপুরে আশরাফ ঘরামির ছেলে আরাফাত ও তার ভাই আফজাল ঘরামির মেয়ে জান্নাতুল মীম বাড়ির পাশের বলইকাঠি নদীতে গোসল করতে যায়। গোসল করতে নামার কিছুক্ষণ পর ঢাকা থেকে বালুবাহী এমভি আজাদ-হুমায়ন নামে একটি কার্গো নোঙর করে ওই স্থানে।

বালুবাহী কার্গোর চলার গতিতে জলের স্রোতে চাপ দিলে আরাফাত ও মীম নদীর মাঝখানে চলে যায়। এরপর তাদের আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। পরে স্থানীয়রা মাছ ধরার জাল ফেলে শিশু দুটিকে উ’দ্ধার চেষ্টা চালায়। পরে তাদের লা’শ পাওয়া যায়।

পটুয়াখালী সদর থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ঘটনা শুনে তাৎক্ষণিক এসআই সুজনসহ পুলিশের একটি দল পাঠানো হয়।

পরে রাত ৮টার দিকে বলইকাঠি নদীর মাথায় পাতানো মাছ ধরার জালে প্রথমে জান্নাতুল মীমের লা’শ উদ্ধার করে স্থানীয়রা। এরপর রাত ৯টার দিকে পৃথক একটি স্থান থেকে আরাফাতের মৃ’ত’দে’হ উ’দ্ধার করা হয়।

পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে ময়’নাতদন্ত ছাড়াই লা’শ দা’ফ’ন সম্পন্ন করা হবে বলে জানান পুলিশের এসআই সুজন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন