‘খালেদা জিয়াকে গণতান্ত্রিকপন্থায় মুক্ত করা হবে’

প্রকাশিত: ফেব্রু ২০, ২০২০ / ০২:৩৮অপরাহ্ণ
‘খালেদা জিয়াকে গণতান্ত্রিকপন্থায় মুক্ত করা হবে’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া কোনো অপরাধ করেননি। আবারও আদালতে তাঁর জামিনের আবেদন করা হয়েছে। সঠিকভাবে বিচার বিভাগ চলতে পারলে তাঁর জামিন হবে ইনশাআল্লাহ। আর তা না হলে গণতান্ত্রিকপন্থায় তাঁকে মুক্ত করা হবে।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের পূর্বঘোষিত মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করতে না পেরে প্রেসক্লাবের ভেতরে নজরুল ইসলাম খান এ কথা বলেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে তিলে তিলে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেওয়া একটি অমানবিক অপরাধ। সেই অপরাধ শুধু সরকারের হবে না, বাংলাদেশকে সেই অপরাধের দায় নিতে হবে। বাংলাদেশ আমাদের সবার। বাংলাদেশকে হেয় করার অধিকার কারো নেই। অতএব, আমরা সরকারের কাছে দাবি জানাব, অবিলম্বে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, ‘দেশনেত্রী খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ। তাঁর সুচিকিৎসার দাবিতে আমরা জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করতে চেয়েছিলাম। এ ছাড়া এ দেশের সাধারণ দিনমজুর ও নির্দিষ্ট নিম্নআয়ের মানুষ দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে দিশেহারা। এই দ্রব্যমূল্য ঊর্ধ্বগতি রোধে সরকারের ব্যর্থতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানো এই মানববন্ধনের অন্যতম উদ্দেশ্য ছিল।

কিন্তু প্রেসক্লাবের পেছনে ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রীর একটি প্রোগ্রাম আছে। তাই তাঁর নিরাপত্তাজনিত কারণে প্রেসক্লাবের সামনে কাউকে দাঁড়াতে দেওয়া হচ্ছে না। সে কারণে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আজকের মানববন্ধন কর্মসূচি আগামী শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় প্রেসক্লাবের সামনে আমরা পালন করব।’

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান সরোয়ার ও হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, সহ-শ্রমবিষয়ক সম্পাদক হুমায়ুন কবির খান, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, অর্থ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিক দলের সভাপতি কাজী আমির খসরু, সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম বাদল, সহসভাপতি সুমন ভূঁইয়া প্রমুখ।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন