একটি ব্রিজ পঞ্চাশ বছরেও নির্মাণ হয়নি

প্রকাশিত: ফেব্রু ১৯, ২০২০ / ০৬:৫২অপরাহ্ণ
একটি ব্রিজ পঞ্চাশ বছরেও নির্মাণ হয়নি

নওগাঁর রাণীনগরের র’ক্ত’দ’হ বিলে ব্রিজ না থাকায় ঐ এলাকার ১০টি গ্রামের মানুষের চলাচলের একমাত্র ভরসা নৌকা। প্রায় অর্ধশত বছরেও নির্মাণ হয়নি একটি ব্রিজ। ফলে এই গ্রামগুলোর প্রায় অর্ধ-লক্ষাধিক মানুষকে প্রতিনিয়ত নানা ভো’গা’ন্তি পোহাতে হচ্ছে।

র’ক্ত’দ’হ বিলটি রাণীনগর ও বগুড়া জেলার আদমদীঘি এই দুই উপজেলার সীমানায় অবস্থিত হলেও সিংহভাগই পড়েছে রাণীনগর উপজেলার মধ্যে। এই বিলের দুইপাশে প্রায় ১০টি গ্রাম রয়েছে। বিল এলাকার মানুষগুলোকে খেয়া পারাপারের জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা ঘাটে অপেক্ষা করতে হয়।

নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের সংসদ সদস্য মো: ইসরাফিল আলম বলেন, ‘বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর এই খেয়া ঘাটে একটি ব্রিজ নির্মাণের পদক্ষেপ হাতে নেওয়া হয়। আমি অনেক দপ্তর ঘুরে ঘুরে অনেক কষ্টে অবশেষে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি পেয়েছি।

ইতিমধ্যেই প্রাথমিক পর্যায়ের কাজ শেষ হয়েছে। আর কিছু প্রক্রিয়া বাকি আছে। সেগুলো শেষ হলেই আশা করছি অতিদ্রুতই আনুষ্ঠানিক ভাবে ব্রিজ নির্মাণের কাজ শুরু হয়ে যাবে।’

রাণীনগর উপজেলা সদর থেকে পূর্ব-উত্তর রাণীনগর-আবাদপুকুর প্রধান সড়ক থেকে বেলঘড়িয়া গ্রামের ভিতর দিয়ে বোদলা হয়ে র’ক্ত’দ’হ বিলের মধ্য দিয়ে বগুড়া জেলার আদমদীঘি উপজেলার সান্দিরা, সান্তাহার ও নওগাঁর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে।

এই রাস্তা দিয়ে রাণীনগর উপজেলার বোদলা, পালশা, বিলকৃষ্ণপুর, সরকাটিয়া, তেবারিয়াসহ র’ক্ত’দ’হ বিল পারের প্রায় ১০ গ্রামের মানুষ চলাচল করে। র’ক্ত’দ’হ বিলের মধ্যে সান্দিরা-বোদলা সড়কের মধ্য দিয়ে খাল প্রবাহিত হওয়ায় দুই উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় ভাগ হয়ে পড়েছে।

ফলে পারাপারের জন্য দুই পাশের মানুষ ও শিক্ষার্থীদের নৌকার অপেক্ষায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থাকতে হয়। ব্যবসা-বাণিজ্য, শিক্ষা, চিকিৎসাসহ দৈনন্দিন জীবনের নানা চাহিদা মেটানোর জন্য বিভিন্ন গ্রামে চলাচলের একমাত্র ভরসা হয়ে এই খেয়া ঘাটের নৌকা।

রাণীনগর উপজেলার বোদলা গ্রামের বাসিন্দারা বলেন, ‘একটি ব্রিজের অভাবে দুই পারের মানুষ চলাচল করতে চরম কষ্ট হয়। একটি ব্রিজের অভাবে বিশেষ করে স্কুল কলেজ মাদ্রাসার ছাত্র-ছাত্রীরা নিয়মিত কলেজে যেতে পারছে না।

জন্মের পর থেকে শুনে আসছি যে এখানে একটি ব্রিজ নির্মাণ করা হবে কিন্তু আজ জীবনের শেষ প্রান্তেও এসে আমাদের ভাগ্যে জুটল না একটি ব্রিজ।’

স্থানীয়দের আক্ষেপ, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন কে বাস্তবায়ন করার জন্য প্রধানমন্ত্রী কন্যা শেখ হাসিনা নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। গ্রামে গ্রামে শহরের সুবিধা পৌঁছে দিচ্ছেন তাহলে আমাদের এই বিলে একটি ব্রিজ কবে হবে?

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন