তাপস পালের মৃ’ত্যুর জন্য বিজেপি দায়ী করলেন মমতা

প্রকাশিত: ফেব্রু ১৯, ২০২০ / ০৬:৩৮অপরাহ্ণ
তাপস পালের মৃ’ত্যুর জন্য বিজেপি দায়ী করলেন মমতা

ভারতীয় চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পালের মৃ’ত্যু’র জন্য দেশটির কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারকে দায়ী করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন তদন্ত সংস্থার চাপ ছিল। যে কারণে তিনি অসময়ে আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন।

বুধবার মমতা আরও বলেন, কেন্দ্রীয় সরকারের চাপে অনেক প্রাণ ঝ’রে গেছে। বিভিন্ন সংস্থার চাপে তিনজন মা’রা গেছেন। যাদের মধ্যে প্রথমে রয়েছেন, তৃণমূল এমপি সুলতান আহমেদ, প্রসূন ব্যানার্জির স্ত্রী ও তাপস পাল।

রাজনৈতিক প্রতিহিং’সার কারণে এসব মৃ’ত্যু হয়েছে বলে দাবি করেন মমতা ব্যানার্জি।

ভারতীয় বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পাল মঙ্গলবার ভোরে মুম্বাইয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে মা’রা যান। এরপরেই দো’ষারোপের খেলায় মেতে উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি।

মৃ’ত্যুকালে পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেসের সাবেক এই সাংসদের বয়স হয়েছিল ৬১ বছর।

তাকে মানসিকভাবে নি’র্যাতনের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার দা’য়ী বলে অ’ভিযোগ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু বিজেপি সেই অ’ভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছে।

মমতা বললেন, লোকজনকে কা’রাবন্দি করে রাখা হচ্ছে। কিন্তু তাদের বি’রুদ্ধে অ’পরাধের কোনো প্রমাণ হাজির করতে পারছে না তারা। কেউ অ’পরাধ করলে অবশ্যই তিনি শা’স্তি পাবেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত আমরা জানতে পারিনি যে তাপস পাল ও অন্যান্য কী অ’পরাধ করেছেন।

কন্যাকে দেখতে মুম্বাই গিয়েছিলেন তাপস। সেখান থেকে কলকাতায় ফেরার সময় মুম্বাই বিমানবন্দরে বুকে ব্য’থা অনুভব করার কথা জানালে তাকে একটি হাসপাতালে নেয়া হয়।

সেখানে ভোররাত ৪টার দিকে তার মৃ’ত্যু হয় বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াকে জানিয়েছে।

বেশ কিছুদিন ধরে হৃদরোগে ভুগছিলেন তিনি। গত দুই বছরে চিকিৎসার জন্য বেশ কয়েকবার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন এই অভিনেতা।

১৯৫৮ সালে পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলার চন্দননগরে জন্ম তাপস পালের। ১৯৮০ সালে তরুণ মজুমদার পরিচালিত ছবি দাদার কীর্তি দিয়ে সিনেমায় অভিষেক। অভিষেকেই দর্শকের মন জয় করেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন