সিঙ্গাপুর প্রবাসি বাংলাদেশিরা করুনা ভাইরাস থেকে বাচার উপায় জানুন

প্রকাশিত: ফেব্রু ১৩, ২০২০ / ০৩:৩৯অপরাহ্ণ
সিঙ্গাপুর প্রবাসি বাংলাদেশিরা করুনা ভাইরাস থেকে বাচার উপায় জানুন

বর্তমানে করোনা ভাইরাস আতঙ্কে রয়েছে পৃথিবীর বেশিরভাগ মানুষ। ভাইরাসের উৎপত্তি চীন থেকে। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর লক্ষণ হলো, কাশি, জ্বর, শ্বাসকষ্ট। এক পর্যায়ে কিডনি নষ্ট হয়ে যেতে পারে। পরিশেষে মৃত্যু।

আজ পর্যন্ত এ রোগের কোনো ভ্যাকসিন বা প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি। এ ভাইরাসে আক্রান্ত কোনো রোগীর হাঁচি ও কাশি থেকে এ ভাইরাস ছড়ায়। এমনকি আক্রান্ত রোগীর সঙ্গে হাত মেলালেও দেহে ছড়িয়ে পড়তে পারে করোনা ভাইরাস। আসুন জেনে আসি করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায়।

১. বাইরে বের হওয়ার আগে সঙ্গে মাস্ক নিতে ভুলবেন না।

২.বাইরে থেকে ফিরে হ্যান্ডওয়াশ বা লিকুইড সোপ দিয়ে ভালো করে হাত ধুয়ে নিন।

৩. বাস, ট্রেন বা এজাতীয় গণপরিবহনগুলো এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন।

৪. যতটা সম্ভব ঘরেই থাকার চেষ্টা করুন। সময় কাটানোর জন্য ভালো কোনো সিনেমা দেখুন বা বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিন। তবে বাইরে প্রয়োজন ছাড়া বের না হওয়াই ভালো।

৫. বাইরে যাওয়ার আগে ঘরের দরজা জানালা বন্ধ করে যান। সকালে ঘণ্টাখানেকের জন্য জানালা খোলা রাখুন। তাতে পর্যাপ্ত সতেজ বাতাস এবং সূর্যের আলো ঘরে প্রবেশ করবে।

৬. সুস্থ এবং শক্তিশালী থাকতে স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে হবে। প্রচুর ফলমূল এবং পর্যাপ্ত পানি খাবেন। কোনোকিছু খাওয়া কিংবা রান্না করার আগে ভালো করে ধুয়ে নেবেন।

৭. ডিম কিংবা মাংস রান্নার সময় চেষ্টা করুন পর্যাপ্ত সময় ধরে রান্না করতে। খেয়াল রাখবেন, এগুলো যেন অবশ্যই সেদ্ধ হয়।

৮. ময়লা কাপড় দ্রুত ধুয়ে রাখার চেষ্টা করুন, দিন বা সপ্তাহ ধরে ফেলে রাখবেন না।

৯. ঘর পরিষ্কার রাখুন। নিয়মিত আপনার থাকার ঘর এবং কাজের জায়গা পরিষ্কার করুন। এক্ষেত্রে ইথাইল অ্যালকোহল ব্যবহার করুন। এটি আপনি যেকোনো ওষুধের দোকানেই পেয়ে যাবেন।

১০.সুরক্ষিত থাকতে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করবেন। অসুস্থ বোধ করলে দ্রুত চিকিৎসকের কাছে যান। আপনার পরিচিত কেউ আক্রান্ত মনে হলেও দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করুন।

সিঙ্গাপুরে আরও এক বাংলাদেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে এ তথ্য দিয়েছে। সিঙ্গাপুরে এ নিয়ে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৪৭ জনে, চীনের বাইরে যা সর্বোচ্চ।

সিঙ্গাপুরের জাতীয় দৈনিক স্ট্রেইট টাইমসের অনলাইন প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, আজ আরও যে দু’জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তাদের মধ্যে ৩৯ বছর বয়সী একজন বাংলাদেশি নাগরিক বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

তিনি সেলেটার অ্যারোস্পেস হাইটস নামের একটি এলাকায় কাজ করতেন। এর আগে গত শনিবার একই স্থানে আরেক বাংলাদেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আজ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া অপরজন সিঙ্গাপুরের নাগরিক। তার বয়স ৩৫ বছর। এই দু’জনের কেউই সম্প্রতি চীন সফর করেননি।

স্ট্রেইট টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত শনিবার ৩৯ বছর বয়সী যে বাংলাদেশি নাগরিকের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়। তিনি এখন সিঙ্গাপুরের এনসিআইডির আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছেন। সেখানে চিকিৎসা চলছে তার।

এদিকে চীন থেকে বিশ্বের ত্রিশটির বেশি দেশে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে। সোমবার একদিনে আরও ১০৮ জন মারা যাওয়ায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক হাজার ১৬ জন। গত ৩১ ডিসেম্বর প্রথমবার শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এটাই একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর নতুন রেকর্ড।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন