বিদ্যুৎ উৎপাদনে চমক দেখালো দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী, ডাক পড়লো নাসায়

প্রকাশিত: ফেব্রু ১১, ২০২০ / ০৪:২০অপরাহ্ণ
বিদ্যুৎ উৎপাদনে চমক দেখালো দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী, ডাক পড়লো নাসায়

ভারতের ভাগলপুরে কলাপাতা থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে রী’তিমতো তা’ক লাগিয়ে দিয়েছেন এক শিক্ষার্থী। এখন তার ডাক পড়েছে নাসায়।

গোপাল নামের এই শিক্ষার্থী দশম শ্রেণিতে পড়ে। ফেলে দেয়া কলাপাতা কিংবা কলাগাছের কা’ণ্ড থেকে বিদ্যুৎ তৈরি করতে পারে গোপাল। জ্বা’লাতে পারে আলো।

তার এসব আবিষ্কারের গল্প দেশ ছা’ড়িয়ে এখন বিদেশের মাটিতেও ছ’ড়িয়ে পড়েছে। তবে দেশের জন্য কাজ করতে চায় গোপাল। গোপাল শুধু একজন গবেষক হিসেবেই পরিচিত নয়, বিভিন্ন জায়গায় উৎসাহমূলক বক্তৃতা দেয়ার জন্যও নিয়ে যাওয়া হয়। তার হাতে দুটি আবিষ্কারের পেটেন্টও রয়েছে। স্কুলে থাকতেই তার এসব আবিষ্কার তা’ক লাগিয়ে দিয়েছিল অনেককে।

ভাগলপুরের প্রত্য’ন্ত এলাকার ছেলে গোপাল। বাবা পেশায় কৃষক। চার ভাইবোনকে নিয়ে সংসার। সরকারি স্কুলেই পড়াশোনা করেছে। কিছু দিন আগেই তাইপেইতে এক এক্সিবিশনে ১০ দেশের স্টা’র্টআ’প সংস্থাকে ডাকা হয়। সেখানে আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন গোপাল।

ক্লাস টেনে পড়তেই ই’ন্সপা’য়ার অ্যাও’য়ার্ড (Inspire Award) পায় সে। ২০১৭ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মু’খোমু’খি হয় গোপাল। ৫-১০ মিনিট কথা হয় দুজনের।

সেখান থেকে তাকে আহমেদাবাদের জাতীয় উদ্ভা’বন ফাউন্ডেশনে (National Innovation Foundation) কাজ করার সুযোগ দেয়া হয়। সেখানে ৩-৪ রকমের আবিষ্কারের কাজে হাত লা’গান তিনি।

এমনকি আমেরিকা থেকেও বিজ্ঞানীরা এসে দেখা করে গেছে এই খুদে বিজ্ঞানীর সঙ্গে। আর সে এখন ডা’ক পেয়েছে নাসা থেকেও। এখন স্কুল পড়ুয়াদের বিজ্ঞানের আবিষ্কারে উৎসাহ দেয়ার জন্য বক্তৃতা দিচ্ছে গোপাল। বি টেক পড়ার পাশাপাশি, আবিষ্কারের কাজও চলছে। ভবিষ্যতে পিএইচডি করার ইচ্ছে আছে তার।তথ্যসূত্র: কলকাতা২৪

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন