নেত্রকোনাতে ভাইয়ের হাতে বোন খু’ন

প্রকাশিত: ফেব্রু ৯, ২০২০ / ০১:২০পূর্বাহ্ণ
নেত্রকোনাতে ভাইয়ের হাতে বোন খু’ন

নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় ভাইয়ের লা’ঠির আ’ঘা’তে রুমা আক্তার রুবি (১৮) নামে এক কিশোরী নি’হ’ত হওয়ার অ’ভি’যো’গ ওঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার পৌরসভার ওয়াশেরপুর গ্রামে। নি’হ’ত রুমা ওই গ্রামের ফজলুর রহমানের মেয়ে।

সে পৌর সদরের পারভীন সিরাজ মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী ছিল বলে জানা গেছে। তবে চা’ঞ্চ’ল্য’কর এ হ’ত্যা’কা’ণ্ডের সঙ্গে পরিবারের সদস্যরা জ’ড়ি’ত থাকায় ঘটনাটি ধা’মা’চা’পা দেওয়ার চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে।

পুলিশসহ একাধিক সূত্র জানায়, শনিবার দুপুরের দিকে রুমা আক্তার রুবির ভাইদের মধ্যে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝ’গ’ড়া বাধে। এক পর্যায়ে ওই ঝ’গ’ড়া থামাতে গেলে ভাইদের লাঠির আ’ঘা’তে রুমা মা’রা’ত্ম’ক জ’খ’ম হয়।

গুরুতর আ’হ’ত অবস্থায় তাকে প্রথমে কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে রুমা মা’রা যান। তবে চাঞ্চল্যকর এ হ’ত্যা’কা’ণ্ডের সঙ্গে পরিবারের সদস্যরা জ’ড়ি’ত থাকায় ঘটনাটি ধা’মা’চাপা দেওয়ার চেষ্টা চলছে বলে অ’ভি’যোগ ওঠেছে।

কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ওয়াহিদ জানান, মেয়েটিকে মাথায় গু’রু’ত’র জ’খ’ম অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। তবে অবস্থা খারাপ থাকায় পরে তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে শনিবার রাতে কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় এখনো কেউ লিখিত অ’ভি’যো’গ করেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন