এইমাত্র শেষ হল ভারত-নিউজিল্যান্ডের ম্যাচ জেনেনিন ফলাফল

২৩৯ রানে থেমে যখন মাঠ ছাড়ছিলেন স্যান্টনার ও বোল্ট তখন ওল্ড ট্রাফোর্ডে তুমুল হর্ষধ্বনি। পুরো স্টেডিয়ামটায় ভারতের সমর্থকদের উল্লাস। আধা ঘণ্টার মধ্যে সেই উল্লাস পরিণত হলো সুনসান নীরবতায়। প্রথম চার ওভারে স্কোরটা দেখুন, ছয় রানে তিন উইকেট নেই। সে ধারাবাহিকতায় ৯২ রানে ছয় উইকেট হারিয়ে বসে ভারত।

এই অবস্থা থেকেও ঘুরে দাঁড়িয়েছিল দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। সপ্তম উইকেট জুটিতে মহেন্দ্র সিং ধোনি ও রবিন্দ্র জাদেজা অসাধারণ পার্টনারশিপ গড়ে দলকে জয়ের একেবারেই কিনারায় নিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পারেননি তারা, ১৮ রানে হেরে শেষ চার থেকেই বিদায় নেয় কোহলিরা। আর নিউজিল্যান্ড টানা দ্বিতীয়বার ফাইনালে ওঠে।

তবে চলমান বিশ্বকাপে জাদেজা ব্যক্তিগত দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নেমে ৫৯ বলে ৭৭ এবং ধোনি ৭২ বলে ৫০ রান করে দারুণভাবে আশা জাগিয়েছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দলকে জয়ের উল্লাসে মাতিয়ে তুলতে পারেননি তারা। আট রানের ব্যবধানে ধোনি ও জাদেজা দুইজনেই সাজঘরে ফিরে গেলে ভারত আর পারেনি ফাইনালে উঠতে।

এমন একটি প্রত্যাবর্তন সম্ভবত অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও আশা করেননি। এভাবেও ম্যাচে ফিরে আসা যায়। অথচ গতকাল বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচ আর আজ বুধবারের রিজার্ভ ডে-তেও নিউজিল্যান্ডের পারফরম্যান্স ছিল বেশ হতাশাজনক। আট উইকেট হারিয়ে ২৩৯ রান করে নিউজিল্যান্ড।

গতকাল মঙ্গলবার ওল্ড ট্রাফোর্ডে ভারতের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করতে নামে নিউজিল্যান্ড। ইনিংসের ৪৭তম ওভারে শুরু হয় বৃষ্টি। ভারতের পেসার ভুবনেশ্বের কুমার ওই ওভারের প্রথম বলটি করার পরই ম্যাচ বন্ধ করে দেন আম্পায়াররা। এরপর তিন ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ১০ মিনিট পর্যন্ত ম্যাচ শুরু করা সম্ভব হয়নি। ফলাফল—রিজার্ভ ডে-তে গড়ায় ম্যাচটি।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত