‘কাকের বিরিয়ানি’ বিক্রি হচ্ছিল দেদারসে

প্রকাশিত: ফেব্রু ৪, ২০২০ / ০৭:২৭অপরাহ্ণ
‘কাকের বিরিয়ানি’ বিক্রি হচ্ছিল দেদারসে

কাকের মাংসকে মুরগির মাংসের সঙ্গে মিশিয়ে বিক্রি করার অভিযোগে দুই ব্যক্তিকে গ্রে’ফ’তার করেছে পুলিশ। বিষয়টি জানাজানির পর ওই স্থানীয়রা ক্রেতারা বি’স্মিত হয়ে তাদের বিচার চাইছেন।

কাক মেরে চিকেন বলে চালিয়ে দেয়ার এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের তামিলনাড়ুর রামেশ্বরম নামক এলাকায়।

গত বৃহস্পতিবার অভিযুক্ত দুই ব্যক্তির কাছ থেকে ১৫০টি মৃ’ত কাক উদ্ধার হয়েছে বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন স্থানীয় বনবিভাগের কর্মকর্তারা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তথ্য মতে, মুরগি বিরিয়ানির নামে কাকের বিরিয়ানি বিক্রির কারবার বহুদিন ধরেই করে আসছিলেন তারা। যখন পূর্বপুরুষদের স্মরণের কথা বলে এই ২ ব্যক্তি কাকদের খাবার খাওয়াচ্ছিল, ঠিক তখনই একজনের স’ন্দেহ হয়।

এরপরই এক এক করে অসংখ্য কাক ম’র’তে শুরু করে। এরপরে ওই ব্যক্তি বিষয়টি পুলশিকে জানায়। এরপর সত্যি দেখা যায়, কাকের খাবারের মধ্যে বি’ষ মেশানো ছিল এবং মরা কাকগুলোকেই মুরগির বলে বিক্রি করছিলেন অ’ভি’যুক্তরা।

শহরের রাস্তার ধারের বিভিন্ন খাবারের দোকানে মুরগির বিরিয়ানি বলে কাকের বিরিয়ারি বিক্রি করতেন তারা। আর সেই খাবারই আনন্দের সঙ্গে খেয়েছে সাধারণ মানুষ। এমন ঘটনায় পুরো এলাকায় হ’ই’চ’ই পড়ে গিয়েছে। গ্রে’প্তা’কৃতদের ক’ঠোর শা’স্তি’র দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন