সাজানো নাটক ছিলো ‘মহাত্মা গান্ধীর স্বাধীনতা আন্দো’লন’!

প্রকাশিত: ফেব্রু ৩, ২০২০ / ০৭:০৬অপরাহ্ণ
সাজানো নাটক ছিলো ‘মহাত্মা গান্ধীর স্বাধীনতা আন্দো’লন’!

ফের বি’ত’র্কিত মন্তব্য করে বসলেন ভারতের প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বিজেপি সাংসদ অনন্ত কুমার হেগড়ে। এবার মহাত্মা গান্ধীকে আ’ক্র’মণ করলেন তিনি। বললেন, গান্ধীজীর নেতৃত্বে স্বাধীনতা আ’ন্দো’লন ছিল ‘নাটক’।

একাধিক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, ভারতে এ ধরণের লোকজনকে কীভাবে ‘মহাত্মা’ বলা হয়, সেই প্রশ্নও তুললেন হেগড়ে। গত শনিবার দেশটির ব্যাঙ্গালোরে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে উত্তর কন্নড়ের সাংসদ বলেছেন, ‘পুরো স্বাধীনতা সংগ্রামই ছিল সাজানো এবং এতে ব্রিটিশের সম্মতি ও সমর্থন ছিল’।

হেগড়ে বলেছেন, ‘এই তথাকথিত নেতাদের পিঠে কখনও পুলিশের লাঠি পড়েনি। তাঁদের স্বাধীনতা সংগ্রাম ছিল একটা বড়সড় নাটক। ব্রিটিশের অনুমোদনেই ওই নেতারা তা করেছিলেন। এটা প্রকৃত সংগ্রামই নয়। এটা একটা সমঝোতার স্বাধীনতা সং’গ্রা’ম’।

বিজেপি নেতা মহাত্মা গান্ধীর অ’ন’শন ধর্মঘট ও সত্যাগ্রহকে ‘নাটক’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘কংগ্রেসের সমর্থক লোকজন বলেন যে, আমরণ অনশন ও সত্যাগ্রহের জন্য ভারত স্বাধীনতা পেয়েছে। এটা সত্য নয়। সত্যাগ্রহের জন্য ব্রিটিশ ভারত ছাড়েনি। হ’তা’শা থেকেই ব্রিটিশ স্বাধীনতা দিয়েছিল। যখন ইতিহাস পড়ি, তখন আমার রক্ত গরম হয়ে যায়। এ ধরনের লোক আমাদের দেশে মহাত্মা হয়ে যান’।

হেগড়ের এই মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা অশোক গেহলট। তিনি বলেছেন, ‘বিজেপি সাংসদের এই মন্তব্য নি’ন্দা’জনক।

বিজেপি নেতারা স্বাধীনতা সংগ্রামকে নাটক বলতে পারেন, কারণ, তাঁরা ভারতের স্বাধীনতার জন্য তাঁরা কখনও লড়াই করেননি, কোনও আ’ত্ম’ত্যা’গও নেই তাঁদের। এ ধরনের মন্তব্যে তাঁদের প্রকৃত মানসিকতারই প্রকাশ হয় যে, তাঁরা শুধু দেখানোর জন্যই গান্ধীজীর নাম ব্যবহার করেন। তাঁর প্রতি তাঁদের কোনও শ্রদ্ধা নেই’।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন