পাকিস্থানের বিপক্ষে লড়াই করার পুঁজিও পেল না বাংলাদেশ

প্রকাশিত: জানু ২৫, ২০২০ / ০৫:২৬অপরাহ্ণ
পাকিস্থানের বিপক্ষে লড়াই করার পুঁজিও পেল না বাংলাদেশ

বরাবরের মতো ব্যাটিং ব্যর্থতা। প্রত্যাশিত ঝড় তুলতে পারেননি একজনও। শুরুতে ব্যাটিংয়ে নেমে এক প্রান্ত আগলে রাখেন তামিম ইকবাল। কিন্তু ধীরগতির ব্যাটিংয়ে রানের গতি বাড়াতে পারেননি তিনিও। ফলে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানের সামনে মাত্র ১৩৬ রানে থেমে যায় বাংলাদেশ।

আজ শনিবার পাকিস্তানের বিপক্ষে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ছয় উইকেটে ১৩৬ রান করে বাংলাদেশ। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৫ রান করেন তামিম ইকবাল।

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় সফরকারীরা। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে হারায় ওপেনার নাঈমকে। আগের ম্যাচে লম্বা সময় ধরে টিকে থাকা নাঈম আজ ফেরেন গোল্ডেন ডাকে।

তিন ব্যাট করতে নামা মেহেদী হাসানও ফেরার ম্যাচে জ্বলে উঠতে পারলেন না। দুই বছর পর জাতীয় দলে ফেরা মেহেদী ৯ রানে ফিরলেন সাজঘরে। ২০১৮ সালে সিলেটে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অভিষেক হয় মেহেদীর। কিন্তু সেই ম্যাচে ব্যর্থতার পর জাতীয় দলের হয়ে আর খেলা হয়নি। অবশেষে ফিরলেন জাতীয় দলে, কিন্তু ফেরাটা রঙিন হলো না।

মেহেদীর পর উইকেটে থিতু হতে পারেননি লিটন দাসও। বিপিএলে ফর্মে থাকা লিটন দুই ম্যাচেই ব্যর্থ হলেন। এলবির ফাঁদে ফেলে তাঁকে সাজঘরে পাঠান শাদাব খান।

মাত্র ৪১ রানে তিন টপঅর্ডার ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ। সেখান থেকে চতুর্থ উইকেটে হাল ধরেন তামিম-আফিফ। এই জুটিতে ৪৫ রান তোলে বাংলাদেশ। ১৫তম ওভারে আফিফকে ফিরিয়ে এই জুটি ভাঙেন হাসনাইন। ২০ বলে ২১ রানে ফেরেন আফিফ।

দ্রুত উইকেট হারানোর পাশাপাশি রানের গতিও বাড়াতে পারেনি বাংলাদেশ। ১৮ ওভার পর্যন্ত টিকে ছিলেন তামিম। এক প্রান্ত আগলে রেখে ৪৪ বলে পঞ্চাশ স্পর্শ করেন বাঁহাতি এই ওপেনার। তবে শেষের দিকে যখন হাতখুলে খেলা শুরু করেন, তখন রানআউট হয়ে সাজঘরে ফিরতে হয় তামিমকে। ফেরার আগে ৫৩ বলে ৬৫ রান করেন বাংলাদেশি ওপেনার। তামিম ফিরলে শেষ পর্যন্ত ১৩৬ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ।

ম্যাচটিতে একাদশে একটি পরিবর্তন এনেছে বাংলাদেশ। আগের ম্যাচে সুযোগ পাওয়া মোহাম্মদ মিঠুন জায়গা হারিয়েছেন। তাঁর পরিবর্তে একাদশে সুযোগ পেয়েছেন বিপিএলে দারুণ খেলা মেহেদী হাসান।

তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে হেরে ১-০ তে পিছিয়ে আছে বাংলাদেশ। আজ সিরিজে টিকে থাকার ম্যাচেও টস জিতেছে বাংলাদেশ। টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।

গতকালও টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু টস জয়ের সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি। ব্যাটসম্যানদের মন্থর ব্যাটিংয়ে খুব বড় সংগ্রহের ভিত গড়তে পারেনি সফরকারীরা। নাঈম-তামিমের ওয়ানডে মেজাজের ইনিংসে মাত্র ১৪১ রান সংগ্রহ করে লাল-সবুজের দল। এ রান নিয়ে আর কতটুকুই বা লড়াই করা যায়। তবু নিজেদের সেরাটা দিয়েছেন শফিউল-আমিনুলরা। কিন্তু লাভ হয়নি। শেষ ওভারে ঠিকই জয় তুলে নিয়েছে পাকিস্তান। তাতে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে পাকিস্তান। আজ দ্বিতীয় ম্যাচে জিতলেই সিরিজ জিতে নেবে দলটি। আর বাংলাদেশ জিতলে শেষ ম্যাচে হবে সিরিজজয়ী নির্ধারণ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

বাংলাদেশ : ২০ ওভারে ১৩৬/৬ (তামিম ৬৫, নাঈম ০, মেহেদী ৯, লিটন ৮, আফিফ ২১, মাহমুদউল্লাহ ১২, সৌম্য ৫, আমিনুল ৮; ইমাদ ২-০-১৬-০, আফ্রিদি ৪-০-২২-১, হাসনাইন ৪-০-২০-২, হারিস ৪-০-২৭-‌১, শাদাব ৩-০-২৮-১, ইফতেখার ১-০-১২-০, মালিক ২-০-৯-০)।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন