কোনো প্রার্থীর ওপর হামলা হলে ইসির গুরুত্ব দেওয়া উচিত : সেতুমন্ত্রী

প্রকাশিত: জানু ২২, ২০২০ / ০২:২৮অপরাহ্ণ
কোনো প্রার্থীর ওপর হামলা হলে ইসির গুরুত্ব দেওয়া উচিত : সেতুমন্ত্রী

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের ওপর গতকাল মঙ্গলবারের হামলা প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘কোনো প্রার্থীর ওপর বা প্রার্থীর ক্যাম্পেইনের ওপর যদি কোনো হামলা হয়ে থাকে, সেটা যার ওপরই হয়ে থাক না কেন, বিষয়টি নির্বাচন কমিশনের গুরুত্বের সঙ্গে দেখা উচিত।’

আজ বুধবার সকালে কক্সবাজার শহরের কলাতলীর সুগন্ধা পয়েন্টে সম্প্রসারিত চার লেন সড়কের কাজ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এখানে কোনো প্রার্থীর ওপর বা প্রার্থীর ক্যাম্পেইনের ওপর যদি কোনো হামলা হয়ে থাকে, সেটা যার ওপরই হয়ে থাক না কেন, বিষয়টি নির্বাচন কমিশনের গুরুত্বের সঙ্গে দেখা উচিত, সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের স্বার্থে। আর এখন আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, যারা ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারে, তারা কিন্তু নির্বাচন কমিশনের অধীনে ন্যস্ত আছে।

কাজেই যদি কোনো হামলা হয়ে থাকে, তাহলে নির্বাচন কমিশন এ ব্যাপারে তাদের যে ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ আছে, সেটা তারা কাজে লাগাতে পারে। ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে নির্বাচন কমিশন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারে। যেই হামলা করুক, এটা সত্যি যদি হামলা হয়ে থাকে এটার পুনরাবৃত্তি রোধ করা উচিত, এই দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের ওপর বর্তায়।’

বিএনপি প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিএনপি এখন একটা নালিশনির্ভর দল হয়ে গেছে। আন্দোলন নির্বাচন কোথাও তাদের সাফল্য নেই। তারা নালিশনির্ভর রাজনীতি করছে। বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে এবং নালিশ করছে। নির্বাচন আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে এখন তাদের নালিশ করা ছাড়া আর রাজনৈতিক পুঁজি নেই।’

রোহিঙ্গ সংকট প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের আমরা মানবিক সাহায্য করেছি, সেই মানবিক সাহায্য এখন আমাদের মানবিক সংকটের দিকে ঠেলে দিয়েছে।’ ভারত, চীনসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে মিয়ানমারের ওপর আরো চাপ প্রয়োগের আহ্বান জানান তিনি।

সড়ক পরিবহনমন্ত্রী বলেন, কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চার লেনের কাজ অনেক দূর এগিয়ে গেছে। নানা কারণে এখন কক্সবাজারের গুরুত্ব অনেক বেড়ে গেছে।

এ সময় কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, স্থানীয় সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, মহিলা সংসদ সদস্য কানিজ ফাতেমা মোস্তাক, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মেয়র মজিবুর রহমান, উপস্থিত ছিলেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন