রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রীসহ মন্ত্রিসভার পদত্যাগ, মূলে পুতিনের সঙ্গে দ্ব’ন্দ্ব

প্রকাশিত: জানু ১৬, ২০২০ / ১১:০১পূর্বাহ্ণ
রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রীসহ মন্ত্রিসভার পদত্যাগ, মূলে পুতিনের সঙ্গে দ্ব’ন্দ্ব

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সংবিধান সংশোধনের প্রস্তাবের প্রতিবাদে কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই বুধবার প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভসহ পদত্যাগ করেছে রাশিয়ার সরকার।

রাশিয়ার ক্ষমতার ভারসাম্য রক্ষায় পুতিনের প্রস্তাবনা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভ। খবর বিবিসির।

রাশিয়ার বর্তমান সংবিধান অনুসারে পুতিন আর প্রেসিডেন্ট হিসেবে থাকতে পারবেন না। পুতিন বলেন, রাশিয়া প্রেসিডেন্ট নাকি পার্লামেন্টশাসিত হবে তা ভোটের মাধ্যমে নির্ধারণ করবে দেশের জনগণ।

পুতিনের প্রস্তাব নিয়ে মেদভেদেভ বলেন, যে পরিবর্তনের কথা বলা হচ্ছে, এই পরিবর্তন শুধু সংবিধানের অনুচ্ছেদেই পরিবর্তন আনবে না। পাশাপাশি ক্ষমতার ভারসাম্যেও পরিবর্তন আনবে। এ পরিবর্তনের অংশ হিসেবেই এ সরকার পদত্যাগ করছে।

প্রেসিডেন্ট পুতিন মেদভেদেভকে জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের ডেপুটি প্রধানের দায়িত্ব নিতে বলেছেন। পুতিন বুধবার জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে সংবিধান সংশোধনসহ আরও অনেক বিষয় তুলে ধরেন। পর্যবেক্ষকদের মতে, পুতিন তার ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতেই সংবিধান সংশোধনের প্রস্তাব দিয়েছেন।

তবে নতুন প্রধানমন্ত্রী নিয়োগের আগ পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন মেদভেদেভ। এ ক্ষেত্রে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে অর্থমন্ত্রী ম্যাক্সিম ওরেসখিন, মস্কোর মেয়র সের্গেই সোবিয়ানিন ও জ্বালানিমন্ত্রী আলেকজান্ডার নোভাকের নাম শোনা যাচ্ছে।

বর্তমান সংবিধান অনুসারে প্রধানমন্ত্রী নিয়োগের ক্ষেত্রে পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষের অনুমোদন দরকার হবে প্রেসিডেন্টের। আর প্রেসিডেন্ট পারেন সব ডেপুটি ও মন্ত্রীদের নিয়োগ দিতে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন