পাকিস্তানের আর্থিক ক্ষতি লাঘবেই বাংলাদেশ ওয়ানডে খেলবে

প্রকাশিত: জানু ১৫, ২০২০ / ০৬:৫৫অপরাহ্ণ
পাকিস্তানের আর্থিক ক্ষতি লাঘবেই বাংলাদেশ ওয়ানডে খেলবে

আইসিসির ফিউচার ট্যুর প্লান অনুসারে পাকিস্তানের মাঠে দুটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার কথা ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত থাকায় লম্বা সময়ের জন্য পাকিস্তান সফরে যেতে রাজি হয়নি বাংলাদেশ।

যে বাংলাদেশ পাকিস্তান সফরে একবারও যেতে রাজি হয়নি সেই তারাই এখন তিন মাসে তিনবার পাকিস্তান সফরে যাবে। শুধু তাই নয়, আগের টি-টোয়েন্টি আর টেস্ট সিরিজের সঙ্গে এখন যোগ হয়েছে একটি ওয়ানডে ম্যাচ।

নতুন করে ওয়ানডে ম্যাচ সংযোজন নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, আমরা যেহেতু তিন ধাপে সফরে যাব তাই তাদের অনেক বেশি খরচ হবে। স্বল্প সময়ে তারা পর্যাপ্ত মার্কেটিংও করতে পারবে না।

পাকিস্তানের সেই আর্থিক ক্ষতি পূরণ করার জন্যই দ্বিতীয় টেস্টের আগে আরও একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার প্রস্তাব দিয়েছিল তারা। আমারা প্রস্তুতি জোরদারের স্বার্থে টি-টোয়েন্টির পরিবর্তে ওয়ানডে খেলায় রাজি হয়েছি।

পাপন আরও বলেন, কথা ছিল একটি টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি খেলা যায় কিনা। কিন্তু আমরা বলেছি, এই মাসে টি-টোয়েন্টি খেলে চলে আসব। তারপর পরের মাসে একটি টেস্ট এবং ফাঁকা সময় দেখে এপ্রিলে আরেকটা টেস্ট খেলব।

তিন ধাপে পাকিস্তান সফর নিয়ে বিসিবি সভাপতি বলেন, আমাদের নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল ও সরকার থেকেও নির্দেশনা এসেছে ওখানে যত কম অবস্থান করা যায় ততই ভালো। আইসিসির সভায়ও সবাই আমাদের প্রস্তাবকে যুক্তিযুক্ত মনে করেছে। অনেক দিন আমরা যাইনি, হঠাৎ করে এখন যাব তাই যাওয়া, পরিস্থিতি দেখার একটা ব্যাপার আছে।

দুবাইয়ের আইসিসি সভা শেষে দেশে ফিরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপে বিসিবি সভাপতি দাবি করেছেন, বিসিবি যেভাবে চেয়েছে পাকিস্তান সফরকে সেভাবেই সাজানো হয়েছে। তিনি বলেন, আমরা যেটা বলেছি, প্রথম থেকে সেটাই হয়েছে। আমি খুশি যে ব্যাপারটার একটা সমাধান এসেছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন