মর্মা’ন্তিক অমার্জনীয় ভুলের কারনে ইউক্রেনের বিমান বি’ধ্ব’স্ত অয়েছে : রুহানি

প্রকাশিত: জানু ১১, ২০২০ / ০১:১২অপরাহ্ণ
মর্মা’ন্তিক অমার্জনীয় ভুলের কারনে ইউক্রেনের বিমান বি’ধ্ব’স্ত অয়েছে : রুহানি

ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেছেন, বিমান বি’ধ্ব’স্তের বি’প’র্য’য়কর ভুলে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান গভীরভাবে অনুতপ্ত।

শনিবার এক টুইটবার্তায় তিনি বলেন, স’শ’স্ত্র বাহিনীর অভ্যন্তরীণ তদন্তে এই সিদ্ধান্তে আসা হয়েছে যে মানবীয় ভুলে দুঃখজনকভাবে ইউক্রেনীয় বিমানে ইরানি ক্ষে’প’ণাস্ত্র’ আ’ঘা’ত হেনেছে। এতে ১৭৬ জন নিরপরাধ লোকের মৃ’ত্যু হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এই ম’র্মা’ন্তি’ক ও অ’মা’র্জ’নীয় ভুল শনাক্ত এবং বিচারের আওতায় নিয়ে আসতে তদন্ত চলছে।

এদিকে ইরানের ভুলে চলতি সপ্তাহে ইউক্রেনীয় যাত্রীবাহী বিমানটি বি’ধ্ব’স্ত হয়েছে বলে স্বীকার করে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ বলেছেন, এতে গভীর অনুশোচনা, ক্ষমা ও শোকপ্রকাশ করেছে তারা দেশ।

এক টুইটবার্তায় তিনি বলেন, এটি একটি বেদনাদায়ক দিন। যুক্তরাষ্ট্রের হঠকারিতায় ডেকে আনা বি’প’র্য’য়ের কারণেই মানবীয় ভুলে এই সংকট তৈরি হয়েছে।

‘আমাদের জনগণ, নি’হ’ত’দের পরিবার ও অন্যান্য আ’ক্রা’ন্ত দেশগুলোর কাছে আমরা অ’নু’ত’প্ত, ক্ষমাপ্রার্থী ও গভীর শো’ক প্রকাশ করছি।’

এদিকে চলতি সপ্তাহে তেহরানে ইউক্রেনীয় বিমান গু’লি করে ভূপাতিত করার জন্য যারা দায়ী, সামরিক আইনে অচিরেই তাদের বিচারের মুখোমুখি করা হবে। শনিবার ইরানি সামরিক বাহিনী এমন দাবি করেছে।

এক সংবাদবিজ্ঞপ্তিতে তারা দাবি করেছে, ফের যাতে এমন ভুল না ঘটে, তা নিশ্চিত করতে স’শ’স্ত্র বাহিনীর পর্যায়ে অ’ভি’যা’ন প্রক্রিয়ায় মৌলিক সংস্কার আনা হবে।

১৭৬ আরোহী নিয়ে ইউক্রেনীয় বিমানটি বি’ধ্ব’স্ত হওয়ার কারণ হিসেবে মানবীয় ভুলের স্বীকারোক্তি এসেছে ইরানের কাছ থেকে।

এর আগে তেহরানের কাছে বি’ধ্ব’স্ত হওয়া বিমানটি ক্ষে’প’ণা’স্ত্র হা’ম’লা’য় বি’ধ্ব’স্ত’ হয়েছে বলে যে দাবি করা হয়েছে, তা অস্বীকার করেছে ইরান।

এক বিবৃতিতে ইরান সরকারের মুখপাত্র আলী রাবাই এমন কথা বলেছেন। তিনি বলেন, এসব প্রতিবেদন ইরানের বিরুদ্ধে ম’ন’স্তা’ত্ত্বিক যু’দ্ধ। যেসব দেশের নাগরিক এই দু’র্ঘ’ট’নায় নি’হ’ত হয়েছেন, তারা নিজেদের প্রতিনিধি পাঠাতে পারেন। বিমানের ব্ল্যাক বক্স তদন্ত প্রক্রিয়ায় যোগ দিতে বিমান নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িংকে আমরা আহ্বান জানিয়েছি।’

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন