স্বামীর হাতে যৌ’তুকের ব’লি হলো অন্তঃসত্ত্বা তমালিকা

প্রকাশিত: জানু ৯, ২০২০ / ০৬:৫০অপরাহ্ণ
স্বামীর হাতে যৌ’তুকের ব’লি হলো অন্তঃসত্ত্বা তমালিকা

নেত্রকোনায় যৌ’তু’কের বলি হলেন অ’ন্তঃ’স’ত্ত্বা তমালিকা আক্তার (২২) নামে অন্তঃস’ত্ত্বা গৃহবধূ। যৌ’তু’কের টাকা এনে দিতে না পারায় তাকে গ’লা কে’টে হ’ত্যা করেছে স্বামী রাসেল মিয়া (৩০)।

বুধবার গভীর রাতে নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার চরসিংধা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে অ’ভি’যু’ক্ত রাসেল প’লা’ত’ক রয়েছেন।

এ ঘটনায় জ’ড়ি’ত থাকার অ’ভি’যো’গে পুলিশ বৃহস্পতিবার সকালে রাসেলের বাবা আবুল হাসিম ও মা মাজেদা আক্তারকে আ’ট’ক করে।

রাসেল মিয়া সিংধা ইউনিয়নের চরসিংধা গ্রামের বাসিন্দা। তিনি পেশায় ঢাকায় একটি তৈরি পোশাক কারখানায় শ্রমিকের কাজ করেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত দেড় বছর আগে রাসেল মিয়া একই ইউনিয়নের পাশের গ্রাম ভাটিপাড়ার রমিজ মিয়ার মেয়ে তমালিকা আক্তারকে বিয়ে করেন। এটি রাসেলের দ্বিতীয় বিয়ে। তমালিকা বর্তমানে সাড়ে সাত মাসের অন্তঃস’ত্ত্বা।

বিয়ের পর থেকে রাসেল বিভিন্ন সময় তমালিকাকে বাবার বাড়ি থেকে যৌ’তু’কে’র টাকা এনে দেয়ার জন্য চাপ দেন। এরই মধ্যে তমালিকা তার বাবার কাছ থেকে বেশ কিছু টাকা এনে দেন।

সম্প্রতি রাসেল আরও কিছু টাকা এনে দিতে বলেন। এতে তার স্ত্রী রাজি হননি। এ নিয়ে স্ত্রীকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নি’র্যা’তন চালান। বিষয়টি নিয়ে কয়েকবার গ্রাম্য সা’লি’সও হয়।

গত বুধবার রাত পৌনে দুইটার দিকে রাসেল তার স্ত্রীকে মা’র’ধ’র, ছু’রি’কা’ঘাত ও জ’বা’ই করে হ’ত্যা করে পা’লি’য়ে যান। খবর পেয়ে পুলিশ বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে লা’শ উদ্ধার করে ম’য়’না’ত’দন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল ম’র্গে’ পাঠায়।

বারহাট্টা থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অন্তঃ’স’ত্ত্বা ওই গৃহবধূ হ’ত্যা’র ঘটনায় স্বামী রাসেল মিয়াকে আ’ট’ক করতে অ’ভি’যা’ন চলছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন