ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে রাহুল গান্ধীকে দেখতে চান দীপিকা

প্রকাশিত: জানু ৮, ২০২০ / ১০:২৬অপরাহ্ণ
ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে রাহুল গান্ধীকে দেখতে চান দীপিকা

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনসহ বিভিন্ন প্রসঙ্গে ভারতের চলমান বি’ক্ষো’ভের বিষয়ে শুরু থেকেই নিরব ছিলেন বলিউডের তারকা অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোন। তবে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে দু’র্বৃ’ত্তদের হা’ম’লার ঘটনায় শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি।

‘ছপাক’ ছবির প্রচারণা থেকে সময় বের করে নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে হা’ম’লার শি’কা’র ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলেছেন দীপিকা। এটি নিয়ে একইসাথে প্রশংসিত ও স’মা’লো’চিত হয়েছেন এই অভিনেত্রী। এরই মধ্যে ভাইরাল হয়েছে দীপিকার একটি পুরনো সাক্ষাৎকারের ভিডিও।

ডিডি নিউজকে দেওয়া সেই সাক্ষাৎকারে দীপিকা বলেন, তিনি কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীকে ভারতের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান। ধারণা করা হচ্ছে, ২০১০ সালে ওই সাক্ষাৎকারটি দেন দীপিকা।

সেই সাক্ষাৎকারে দীপিকা বলেন, আমি যদিও রাজনীতির বিশেষ কিছুই বুঝি না। তবে টিভিতে যেটুকু দেখছি তাতে আমার মনে হয়েছে রাহুল গান্ধী যা কিছুই করছেন তাতে তিনি যুব সমাজের কাছে একটা উদাহরণ। আশা করি, ওনাকে একদিন প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখতে পাব।

আমার মনে হয় রাহুল গান্ধী যুব সমাজের সঙ্গে নিজেকে বেশ ভালোভাবে সংযুক্ত করতে পেরেছেন। উনার যে চিন্তাভাবনা সেটা একদিক থেকে ট্রাডিশনের সঙ্গে যুক্ত আবার ভবিষ্যতের কথা ভেবেও উনি কাজ করেন। তো আমার মনে হয় আমাদের দেশের জন্য উনি ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ।

এদিকে মঙ্গলবার নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার পর দেয়া সাক্ষাৎকারে দীপিকা বলেন, আমার গর্ব হচ্ছে যে আমরা ভয় পাই না। আমরা আমাদের নিজেদের দৃষ্টিভঙ্গি প্রকাশ করছি, দেশের জন্য কথা বলছি।

আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি যেটাই হোক না কেন, আমার এটা ভেবেই ভালো লাগছে যে মানুষ রাস্তায় নামছে এবং নিজেদের বক্তব্য প্রকাশ করছে। আমার মনে হয় এটা খুব দরকার ছিল। যদি সমাজে আমরা কিছু পরিবর্তন আনতে চাই, তাহলে মুখ তো খুলতেই হবে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন