ঢাবি ছাত্রীকে ধর্ষণ : গ্রেপ্তার মজনু র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে

প্রকাশিত: জানু ৮, ২০২০ / ০২:১০অপরাহ্ণ
ঢাবি ছাত্রীকে ধর্ষণ : গ্রেপ্তার মজনু র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে

এই সেই মজনু, যাকে গ্রেপ্তারের দাবিতে গত সোমবার থেকে উত্তাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ (ঢাবি) দেশের বিভিন্ন এলাকা। রাজধানীর কুর্মিটোলা এলাকায় ঢাবির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় তাকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। গতকাল মঙ্গলবার গাজীপুরের টঙ্গী থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার কাছ থেকে ছাত্রীর মোবাইল ও অন্যান্য সামগ্রী উদ্ধার করা হয়েছে।

মজনুকে গ্রেপ্তারের পর আজ সকালে তার ছবি ধর্ষণের শিকার ঢাবি ছাত্রীকে দেখানো হয়। তিনি মজনুকে ধর্ষক হিসেবে শনাক্ত করেন। এরপর মজনুকে আজ বুধবার দুপুর ১টার দিকে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বিএসইসি ভবনে র‍্যাবের মিডিয়া সেন্টারে হাজির করা হয়। মজনুকে দেখতে বিএসইসি ভবনে গণমাধ্যমকর্মী ও উৎসুক জনতার ভিড় জমে।

র‍্যাবের মিডিয়া উইংয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারী পরিচালক মিজানুর রহমান ভূঁইয়া জানান, ঢাবি ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার নাম মজনু।

গত রোববার সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী শেওড়ায় বান্ধবীর বাসায় যাওয়ার পথে কুর্মিটোলায় বিমানবন্দর সড়কে নেমে ধর্ষণের শিকার হন। বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস থেকে নামার পরপরই তিনি আক্রান্ত হন। মুখ চেপে ধরে তাঁকে তুলে সড়কের পাশে ঝোপের মধ্যে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়।

কয়েক ঘণ্টা পর চেতনা ফিরে পেয়ে ওই ছাত্রী বান্ধবীর বাসায় যান। রাতেই তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়। পরদিন ক্যান্টনমেন্ট থানায় একটি মামলা করেন তাঁর বাবা।

ওই মামলায় বলা হয়েছে, ধর্ষক যুবকের বয়স ২৫ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে। উচ্চতা প্রায় পাঁচ ফুট চার ইঞ্চি, গায়ের রং শ্যামলা। স্বাস্থ্য মাঝারি। ঘটনার সময় তার চুল ছোট ছোট ছিল। স্যান্ডেল পরা এই যুবকের পরনে পুরাতন জিন্সের প্যান্ট ছিল। গায়ে ময়লা কালো রঙের ফুলহাতা জ্যাকেট ছিল।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন