স্ত্রীকে খুঁজে দিলে ১ লাখ টাকা বকশিশ দেবেন স্বামী

প্রকাশিত: জানু ৭, ২০২০ / ১২:৫৪পূর্বাহ্ণ
স্ত্রীকে খুঁজে দিলে ১ লাখ টাকা বকশিশ দেবেন স্বামী

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলায় স্বামীর স্বর্ণ ও টাকা নিয়ে তিন বছরের সন্তান রেখে প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়েছেন স্ত্রী। গত ২২ ডিসেম্বর দুপুর ১টার দিকে উপজেলার চরশিমুলিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় শনিবার (০৪ জানুয়ারি) স্বামী সুমন দেবনাথ (২৯) জাজিরা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। পালিয়ে যাওয়া ওই গৃহবধূর (২৫) প্রেমিক জনি পোদ্দার (২৭) নড়িয়া উপজেলার মসুরা গ্রামের নিখিল চন্দ্র পোদ্দারের ছেলে।

লিখিত অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সাত বছর আগে মাদারীপুর সদর উপজেলার পেয়ারপুর গ্রামের এক নারীকে বিয়ে করেন জাজিরা উপজেলার চরশিমুলিয়া গ্রামের মানিক দেবনাথের ছেলে সুমন দেবনাথ। বিয়ের পর পাঁচ বছর তাদের সংসার সুখেই কাটছিল।

গত দুই বছর ধরে জনি পোদ্দারের সঙ্গে তার স্ত্রীর প্রথমে বন্ধুত্ব, পরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ২২ ডিসেম্বর দুপুর ১টার দিকে স্বামী সুমন দেবনাথের স্বর্ণ ও টাকা নিয়ে তিন বছরের ছেলেকে রেখে প্রেমিক জনি পোদ্দারের সঙ্গে পালিয়ে যান স্ত্রী। তাকে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করে না পেয়ে শনিবার জাজিরা থানায় লিখিত অভিযোগ দেন স্বামী।

সুমন দেবনাথ বলেন, আমার দেয়া স্বর্ণের হার, চেইন, আংটি ও কানের দুল ও নগদ এক লাখ ২৫ হাজার টাকা নিয়ে ছেলেকে রেখে আমার খালাতো ভাই জনি পোদ্দারের সঙ্গে পালিয়ে গেছে আমার স্ত্রী। আমি আমার স্ত্রীকে ফিরে পেতে চাই। যিনি আমার স্ত্রীর সন্ধান দিতে পারবেন তাকে এক লাখ টাকা বকশিশ দেব।

জাজিরা থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) ইকবাল হোসেন বলেন, ওই গৃহবধূ তার খালাতো দেবর জনি পোদ্দারের সঙ্গে পালিয়ে গেছে। এ ঘটনায় তার স্বামী সুমন দেবনাথ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন