যু’দ্ধই বেছে নিচ্ছে ইরান, ক্ষে’পণাস্ত্র ঘাঁটি প্রস্তুত

প্রকাশিত: জানু ৫, ২০২০ / ০৪:৩২অপরাহ্ণ
যু’দ্ধই বেছে নিচ্ছে ইরান, ক্ষে’পণাস্ত্র ঘাঁটি প্রস্তুত

বাগদাদে মার্কিন বিমান হা’মলায় নি’হত ইরানের সবচেয়ে ক্ষমতাধর সামরিক জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে হ’ত্যা করায় যুক্তরাষ্ট্রের বি’রুদ্ধে ‘বড় ধরনের প্র’তিশোধ’ নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইরান।

ইতোমধ্যে সামরিক প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করেছে দেশটি। ইরানের সমস্ত ব্যালিস্টিক ক্ষে’পণাস্ত্র ঘাঁটিগুলোকেও রাখা হয়েছে উচ্চ-সতর্কতায়। নিজেদের আকাশসীমায় মহড়া শুরু করেছে যু’দ্ধবিমান।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে হ’ত্যার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রকে উচিৎ শিক্ষা দিতে চায় ইরান। আর সে জন্য তারা যু’দ্ধকেই বেছে নিতে চাইছে। এরই মধ্যে ইরানের পশ্চিম আকাশে যু’দ্ধবিমানের মহড়া চলছে। সতর্ক অবস্থানে থেকে পাহারা দিচ্ছে যু’দ্ধবিমান। মোতায়েন করা হয়েছে এফ-১৪ যু’দ্ধবিমানও।

সামরিক প্রস্তুতি নিলেও এখন পর্যন্ত ইরানের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করে যু’দ্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়নি। তবে দেশটির কর্মকর্তারা তাদের বক্তব্যে যু’দ্ধের ইঙ্গিত দিচ্ছেন। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামিনি বলেন, ‘অ’পরাধীদের জন্য ভয়াবহ প্র’তিশোধ অপেক্ষা করছে।’

ইরানের সে’নাবা’হিনীর (ইসলামিক রেভলুশনারি গার্ডস বা আইআরজিসি) মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল রমজান শরিফ বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র তোমরা কড়া জবাবের জন্য অপেক্ষা করো।’

জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত মাজিদ তাখতে রাভানচি তো সরাসরিই সামরিক হা’মলার কথা বললেন। শুক্রবার মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএনের এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, আমেরিকা যে হা’মলা চালিয়েছে তা প্রকৃতপক্ষে ইরানের জনগণের বি’রুদ্ধে হা’মলা।

তিনি আরও বলেন, ‘এই হা’মলা একটি নতুন অধ্যায়, যা ইরানের বি’রুদ্ধে একটি যু’দ্ধের সূচনা করলো। সামরিক হা’মলার জবাব সামরিক হা’মলা দিয়েই হয়। আর সেটা কখন, কিভাবে এবং কোথায় হবে ভবি’ষ্যতই তা বলে দেবে।’

সিএনএনের অনুষ্ঠানে ইরানের রাষ্ট্রদূত পরিষ্কার করে বলেছেন, ‘আন্তর্জাতিক আইনের আওতায় ইরান এই হা’মলার প্র’তিশোধ নেওয়ার সব ধরনের অধিকার রাখে।’

এদিকে ইরানের সঙ্গে চলা উত্তেজনার মধ্যে মধ্যপ্রাচ্যে আরও তিন থেকে সাড়ে তিন হাজার সৈন্য মোতায়েন করতে যাচ্ছে মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগন। দেশটির একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেছেন, এসব সৈন্য কুয়েতে মোতায়েন করা হতে পারে।

এ ছাড়াও মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর জানিয়েছে, তারা উপসাগরীয় অঞ্চলে আরও একটি যু’দ্ধজাহাজ এবং পেট্রিয়ট ক্ষে’পণাস্ত্র ব্যবস্থা মোতায়েন করছে।

ইরানের এলিট কুদস বাহিনীর প্রধান জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে হ’ত্যা করে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার ইরাকের রাজধানী বাগদাদের একটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিমান হা’মলায় সোলেইমানি নি’হত হন। ট্রাম্পের নির্দেশেই এই হা’মলা করা হয়।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন