কিশোরগঞ্জে নামাজে সেজদারত অবস্থায় নারীর মৃ’ত্যু

প্রকাশিত: জানু ৫, ২০২০ / ০২:০৫পূর্বাহ্ণ
কিশোরগঞ্জে নামাজে সেজদারত অবস্থায় নারীর মৃ’ত্যু

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজে’লা সদরে শারমিন ডায়াগনস্টিক সেন্টারে চিকিৎসা নিতে এসে নামাজরত আবস্থায় মৃ’ত্যু’র কোলে ঢলে পড়লেন হোসনে আরা (৫৫) নামে এক নারী। গত শুক্রবার দুপুরে কি’শোরগঞ্জের কটিয়াদীতে একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে।

হাসপাতালের পরিচালক রাজীব আহমেদ গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ওই নারী উপজে’লার মুমুরদিয়া ইউনিয়নের ধনকী’পাড়া গ্রামের মাহবুবুর রহমানের স্ত্রী’। হোসনে আরার ছোট ভাই স্কুলশিক্ষক নূরুল হক সংগ্রাম জানান, তার বড় বোন হোসনে আরা দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিস রো’গে আ’ক্রা’ন্ত।

তিনি প্রতি মাসে ডাক্তার দেখানোর জন্য কটিয়াদী উপজে’লা সদরের শারমিন ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আসতেন। শুক্রবার দুপুরের দিকে ডাক্তার দেখাতে ওই হাসপাতালে আসেন। ডাক্তার দেখানোর জন্য সিরিয়ালে নিজের নাম লেখান। তিনি ডায়াগনস্টিক সেন্টারের একটি কক্ষে জোহরের নামাজ পড়ছিলেন।

নামাজে সেজদারত অবস্থায় তিনি মৃ’ত্যু’র কোলে ঢলে পড়েন। পরে ডায়াগনস্টিক সেন্টারের লোকজন কটিয়াদী উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃ’ত ঘোষণা করেন।

শারমিন ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কর্মী হালিমা খাতুন বলেন, আমি দুপুরের খাবার খাওয়ার সময় তিনি আমা’র পাশেই নামাজ পড়ছিলেন। একপর্যায়ে সেজদারত অবস্থায় তার দেহ কাঁ’প’তে থাকে। তিনি কাত হয়ে প’ড়ে যান। দ্রুত তাকে হাসপাতালে নেয়া হলে ডাক্তার মৃ’ত ঘোষণা করেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন