বাংলদেশের কোচদের পদে আসছে বড় পরিবর্তন

টাইগারদের সাথে চলতি বিশ্বকাপ পর্যন্তই চুক্তি ছিল কোচ কোটর্নি ওয়ালশের। তাই পাকিস্তানের ম্যাচ শেষ করেই বিদায় নিয়েছেন তিনি। আর হয়ত দেখা হবে না মাশরাফিদের সাথে। তবে এই ব্যাপারে বিসিবি এখনো আনুষ্ঠানিক কোন ঘোষণা দেয়নি। আর চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়াতে ঘোষণার প্রয়োজনও মনে করছেন না বিসিবি। তবে বোর্ড সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে, ওয়ালশের চুক্তি নবায়ন করা হচ্ছে না।

বাংলাদেশ দলের অভিযান শেষ করে লন্ডনের একটি হোটেলে সভায় বসেছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান ও বেশ কয়েকজন বোর্ড পরিচালক। আগে থেকেই অনেকটা এগিয়ে রাখা সিদ্ধান্ত চুড়ান্ত হয়েছে এই সভায়। এই ব্যাপারে কোচ ওয়ালশও প্রস্তুত ছিলেন মানসিকভাবে। তাঁর সাথে সাথে ফিজিও তিহান চন্দ্রমোহনের চুক্তিও আর নতুন ভাবে নবায়ন না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবি। কারণ তাঁর উপরেও খুব একটা আস্থা আর রাখতে পারছেনা খেলোয়াড়রা। পেস বোলিং কোচ হিসেবে থাকতে পারেন চম্পাকা রামানায়ে।

চন্দ্রমোহনের জায়গায় দলের সাবেক ফিজিও দক্ষিণ আফ্রিকার বিভব সিংকে আবার আনতে যোগাযোগ শুরু করেছে বোর্ড। পারফরম্যান্স অ্যানালিস্ট শ্রীনিবাস চন্দ্রশেখরনের চুক্তি দুই বছর বাড়ানো হয়েছে বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার আগেই। তবে বিশ্বকাপ পর্যন্ত আরও চুক্তি ছিল ব্যাটিং কোচ নিল ম্যাকেঞ্জি ও ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুকেরও।

তবে ম্যাকেঞ্জির কাজে দারুণ সন্তুষ্ট বোর্ড ও ক্রিকেটাররা তাই তাঁর চুক্তি বাড়ানো হয়েছে এবং তিনিও রাজি হয়েছেন বলে জানা গেছে। বিশ্বকাপে এবার বাংলাদেশের ব্যর্থতার অন্যতম বড় কারণ ছিল ফিল্ডিং। ক্যাচ পড়েছে ৮-১০টি। যেটির চড়া মূল্য দিতে হয়েছে দলকে। গ্রাউন্ড ফিল্ডিংও ছিল বাজে। তবে ফিল্ডিং কোচ কুকের প্রচেষ্টায় বোর্ড সন্তুষ্ট বলে জানা গেছে। তার চুক্তিও বাড়ানো হতে পারে। স্পিন বোলিং কোচ সুনীল যোশী দিন হিসেবে বেতন পান। তাকে নিয়ে সুনির্দিষ্ট কোন সিদ্ধান্ত আপাতত হয়নি সভায়।

প্রধান কোচ স্টিভ রোডসের সঙ্গে চুক্তি আগামী বছরের অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত। বিশ্বকাপে দলের ব্যর্থতার পর তাকে নিয়েও কথা হয়েছে সভায়। তবে সম্ভাব্য শ্রীলঙ্কা সফরে রোডসই থাকছেন কোচ, এটি নিয়ে সন্দেহ নেই।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত