ওমরা করতে সৌদি আরব যাচ্চছেন নায়িকা পূর্ণিমা

প্রকাশিত: ডিসে ৩০, ২০১৯ / ০৫:১২অপরাহ্ণ
ওমরা করতে সৌদি আরব যাচ্চছেন নায়িকা পূর্ণিমা

ঢাকাই চলচ্চিত্র অভিনেত্রী পূর্ণিমার আলোয় আলোকিত হয়ে আছে দীর্ঘদিন ধরে। সাড়া জাগানিয়া এই অভিনেত্রী তাঁর সুনিপুণ অভিনয় ও বাড়বাড়ন্ত গ্ল্যামার দিয়ে দর্শককে মন্ত্রমুগ্ধ করে রাখার বিদ্যা রপ্ত করেছেন বেশ ভালোভাবেই। শুধু কি দর্শক সামলানো? পাকা অলরাউন্ডারের মতো সামলাচ্ছেন ব্যক্তিগত জীবনও। ধর্ম পালনেও মনোযোগী হতে দেখা যায় তাঁকে।

অভিনয়ে ভীষণ ব্যস্ত সময় পার করেন পূর্ণিমা। সেই সঙ্গে উপস্থাপনা, মডেলিংয়েও সময় দেন নিয়মিত। তাই ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও ওমরাহ করতে যেতে পারছিলেন না তিনি। তবে এবার ঠিকই সময় বের করেছেন। আজ ওমরাহ পালনের জন্য সৌদি আরব যাচ্ছেন তিনি।

এই ব্যাপারে সঙ্গে কথা হয় পূর্ণিমার। তিনি বলেন, ‘আসলে হুট করেই যাচ্ছি— বিষয়টি এমন নয়। অনেক আগে থেকেই ইচ্ছে ছিল পবিত্রভূমি মক্কা- মদিনায় যাব, ওমরাহ পালন করব। এখন সেখানে যাওয়ার সময়- সুযোগ হয়েছে। আল্লাহ রহমত করেছেন, তাই ইচ্ছেটি পূরণ হতে যাচ্ছে।’

আজই ওমরাহ করতে ঢাকা ছাড়বেন জানিয়ে পূর্ণিমা বলেন, ‘সেখানে ৯ দিন থাকব। সবার কাছে দোয়া চাই, সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।’

ওমরাহ পালন শেষে অভিনয় ছেড়ে দিচ্ছেন পূর্ণিমা— এমন খবর চাউর হয়েছে বেশ ভালোভাবেই। তবে বিষয়টিকে স্রেফ ‘গুজব’ হিসেবে অভিহিত করেছেন তিনি। তাঁর ভাষায় ‘ অনেকেই বলছেন ওমরাহ পালন শেষে আমি নাকি অভিনয় ছেড়ে দেব। কারা, কী কারণে—এ সব কথা ছড়ায়, তা আমি বুঝি না। অভিনয় আমার পেশা আর ধর্ম পালন দায়িত্ব। হজ করলেই আমাকে কেন অভিনয় ছাড়তে হবে?’

১৯৯৮ সালে জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘এ জীবন তোমার আমার’ ছবির মাধ্যমে নায়িকা হিসেবে পথচলা শুরু করেন পূর্ণিমা। এর আগে স্বপন চৌধুরী পরিচালিত ‘শত্রু ঘায়েল’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন শিশুশিল্পী হিসেবে। এরই মধ্যে অভিনয় করেছেন শতাধিক ছবিতে।

‘ওরা আমাকে ভালো হতে দিলো না’ ছবিতে দুর্দান্ত অভিনয়ের স্বীকৃতিস্বরূপ শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। বর্তমানে ‘জ্যাম’ ও ‘গাঙচিল’ শিরোনামে দুটি চলচ্চিত্রে কাজ করছেন তিনি।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন