বাম জোটের মিছিলে পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত ২৫

প্রকাশিত: ডিসে ৩০, ২০১৯ / ০৪:০২অপরাহ্ণ
বাম জোটের মিছিলে পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত ২৫

সরকারের পদত্যাগ ও নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে পুনঃনির্বাচনের দাবিতে বাম গণতান্ত্রিক জোটের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে মিছিল পুলিশের বাধায় পণ্ড হয়ে গেছে। এ সময় সংঘর্ষ ও পুলিশের লাঠিপেটায় কমপক্ষে ২৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সমাবেশের পর দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কালো পতাকা মিছিল নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে রওনা হন জোটের নেতা-কর্মীরা। পথে কদম ফোয়ারার সামনে পুলিশের দেওয়া ব্যারিকডে ভেঙে তারা এগিয়ে যান।

পরে দুপুর ১টার দিকে মৎস্য ভবনের সামনে আবার বাধার মুখে পড়েন বাম জোটের নেতা-কর্মীরা। তারা সেখানকার ব্যারিকেড ভেঙে এগোতে চাইলে উপস্থিত পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতি হয়। এ সময় পুলিশের লাঠিপেটায় বাম জোটের কমপক্ষে ২৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

আহতদের মধ্যে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, লিপি আক্তার, আরিফ, সুমিত, সজীব, রাশেদ, তমা, উজ্জ্বল, রিমি, নাঈম ও ইরফানের নাম জানা গেছে।

এ বিষয়ে ডিএমপির রমনা জোনের ডিসি সাজ্জাদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, আমরা তাদের (বাম জোটের নেতাদের) অনুরোধ করেছিলাম তারা যেন ব্যারিকেড না ভাঙেন। কিন্তু তাদের নেতাকর্মীরা কথা শোনেননি।

তারা প্ল্যাকার্ডের সঙ্গে থাকা লাঠি ও বাঁশ দিয়ে পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এতে আমাদের পাঁচ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এর মধ্যে গুরুতর আহত হয়েছেন দুজন। আমরা অনেক ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছি। পরে আমরা তাদের সরিয়ে দিয়েছি।

সূত্র : যুগান্তর, সমকাল

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন