এই মেসেজে ক্লিক করে ফেলেছেন, জেনে নিন এখন করণীয়

প্রকাশিত: ডিসে ৩০, ২০১৯ / ১০:০৯পূর্বাহ্ণ
এই মেসেজে ক্লিক করে ফেলেছেন, জেনে নিন এখন করণীয়

বর্তমান যুগে ফেসবুক ব্যবহার করেন না এমন মানুষ পাওয়াই দুষ্কর। একজন মানুষের প্রায় সব জরুরি তথ্যই পাওয়া যায় তার ফেসবুক একাউন্টে। তাই ফেসবুক একাউন্ট হ্যাক করতে হ্যাকাররাও ব্যবহার করেন নিত্যনতুন পদ্ধতি।

এবারের নতুন বছরকে সামনে রেখে ফেসবুকে একটি ম্যাসেজ স্প্যাম করার মাধ্যমে হ্যাক করা হচ্ছে ফেসবুক আইডি। এই এ ধরনের সারপ্রাইজ মেসেজ লেখা কোনো লিংক আপনার মেসেঞ্জারে এলে সেটাতে ক্লিক করা থেকে বিরত থাকুন।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ সিভিলিয়ান গ্রুপের আদিল হাসান বলেন, একদল চক্র মেসেজ দিয়ে নিজেদের আয়ত্তে নিচ্ছে ফেসবুক মেসেঞ্জার। লিংক পাঠিয়ে তারা এই কাজটি করছে। অধিকাংশ মেসেঞ্জার আইডি কন্ট্রোলে নিয়ে এরকম মেসেজ পাঠানো হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, এ ধরনের লিংকে কেউ ক্লিক করবেন না। সন্দেহজনক লিংকে ক্লিক না করে সবাইকে নিরাপদ ইন্টারনেট ব্যবহারের অনুরোধ জানান তিনি।

ফেসবুক আইডি হ্যাক হলে যা করবেন

বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে ফেসবুক বহুল জনপ্রিয়। ফেসবুক ব্যবহারে রীতিমতো আসক্ত হয়ে পড়ছে এর ব্যবহারকারীরা। তবে ফেসবুক আইডি হ্যাক হওয়ায় অনেককেই নানা হয়রানি ও বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছে।

নিরাপদে ফেসবুক ব্যবহারে কিছু করণীয় আলোচনা করা হলো :

১। পাসওয়ার্ড রক্ষা করতে হবে : পাসওয়ার্ড কারো সাথে শেয়ার করা যাবে না। এমন পাসওয়ার্ড নির্বাচন করুন যা অনুমান করা কঠিন। কখনই নিজের নাম বা সাধারণ শব্দ পাসওয়ার্ড এ ব্যবহার করা উচিত না।

ফেসবুক পাসওয়ার্ডটি শুধু মাত্র ফেসবুকের জন্য ব্যবহার করা উচিত। অন্য কোনো সিকিউরিটির ক্ষেত্রে একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করলে তা প্রকাশ পাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

২। অন্য কেউ যেন আপনার ফেসবুক একাউন্টে লগ ইন করতে না পারে তাই অতিরিক্ত নিরাপত্তা (Login Approvals) ব্যবহার করতে পারেন।

এই জন্য ফেসবুকের Two step verification পদ্ধতি অবলম্বন করতে পারেন।

৩। ই-মেইল অ্যাকাউন্ট নিরাপদ রাখতে হবে।

৪। ব্যবহার শেষে ফেসবুক একাউন্ট থেকে অবশ্যই লগ আউট করতে হবে।

৫। নিউজ ফিডে অথবা মেসেঞ্জারে সন্দেহজনক কোনো লিঙ্ক দেখলে সাথে সাথে রিমুভ করে দিতে হবে। নিশ্চিত না হয়ে যেকোনো গেম, অ্যাপ্লিকেশন এবং অন্যদের পাঠানো কোনো লিঙ্কে ক্লিক করা উচিত না।

৬। ফেসবুক অ্যাকাউন্টে বিকল্প ই-মেইল আইডি যুক্ত করুন। যদি আপনার প্রোফাইল কোনো কারণে হ্যাকও হয়ে যায় সেক্ষেত্রে ফেসবুক আপনার দ্বিতীয় ই-মেইলে আপনার অ্যাকাউন্ট পুনরুদ্ধারের জন্য তথ্য পাঠাবে।

৭। অপরিচিত কারোর ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট গ্রহণ করার আগে তার প্রোফাইল চেক করে নিতে হবে।

৮। একেবারে ব্যক্তিগত কোনো ছবি, তথ্য (ফোন নম্বর, ঠিকানা, ই-মেইল এড্রেস ইত্যাদি) ফেসবুকে শেয়ার করা উচিত না।

৯। আপনার পোস্ট কারা দেখতে পারবে তা সতর্কভাবে নির্বাচন করতে হবে।

১০। পাবলিক কম্পিউটারে (সাইবার ক্যাফে, ল্যাব ইত্যাদি) ফেসবুক ব্যবহার না করাই ভাল। তবে ব্যবহার করতে হলে ব্যবহারের পর লগ ইন হিস্টোরি মুছে দিতে হবে।

ভূক্তভোগীর করণীয় :

১। ফেসবুক হ্যাকের মাধ্যমে হয়রানি কিংবা বিড়ম্বনার শিকার হলে কালক্ষেপণ না করে নিকটস্থ থানা পুলিশকে অবহিত করুন এবং জিডি অথবা মামলা করুন।

২। পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিটে অভিযোগ করুন।

৩। `HELLO CT’ এ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডাউনলোড করে এর মাধ্যমে অভিযোগ করুন।

সূত্র : ডিএমপি নিউজ

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন