বিশ্বের সকল দেশ আমাদের সেনাবাহিনীর প্রশংসা করে: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ডিসে ২৯, ২০১৯ / ০৩:২৮অপরাহ্ণ
বিশ্বের সকল দেশ আমাদের সেনাবাহিনীর প্রশংসা করে: প্রধানমন্ত্রী

সেনাবাহিনীকে আন্তর্জাতিক মানে রূপ দিতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চট্টগ্রামে ৭৭তম বিএমএ দীর্ঘমেয়াদী কোর্সের সমাপনী এবং রাষ্ট্রপতি প্যারেডের সালাম গ্রহণ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সর্বোচ্চ পেশাদারিত্ব বজায় রাখতে নতুন ক্যাডেটদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

রোববার (২৯ ডিসেম্বর) সকালে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী হেলিকপ্টার এসে নামে চট্টগ্রামের ভাটিয়ারী মিলিটারী একাডেমীতে। এরপর তিনি প্যারেড মাঠে আসলে তাকে স্বাগত জানান সেনা প্রধান।

পরে প্রধানমন্ত্রী প্যারেড পরিদর্শন করেন। এরপর সালাম গ্রহণ করেন তিনি।

৭৭তম রাষ্ট্রপতি প্যারেডের মাধ্যমে ২৩৪ জন বাংলাদেশী, ২৯ জন সৌদি, ১ জন ফিলিস্তিনি এবং ১ জন শ্রীলংকান ক্যাডেটসহ ২৬৫ জন কমিশন লাভ করেন। এদের মধ্যে ২৭ জন নারী রয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারে নবীন সেনা সদস্যসহ সকলের প্রতি আহবান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটি স্বাধীন দেশে সেনাবাহিনীর গুরুত্ব অপরিসীম। জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে আমাদের সেনাবাহিনী দক্ষতার পরিচয় দিয়ে যাচ্ছে। বিশ্বের সকল দেশ আমাদের বাহিনীর প্রশংসা করে। দেশকে ভালোবাসতে হবে। দেশের সম্মান বাড়াতে হবে।

সেনাবাহিনীতে আওয়ামী লীগ সরকারের নেয়া নানা পদক্ষপের কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি আরো বলেন, জাতির পিতার দেয়া প্রতিরক্ষা নীতিমালা অনুযায়ী আওয়ামী সরকার কাজ করে যাচ্ছে। আমাদের বাহিনীকে আধুনিকভাবে গড়ে তোলার জন্য ফোর্সেস গোল-২০৩০ প্রণয়ন করা হয়েছে এবং তা বাস্তবায়ণের কাজ শুরু হয়েছে।

এবারের বিএমএ দীঘমেয়াদী কোর্সে সিনিয়র আন্ডার অফিসার সাবির নেওয়াজ শাওন সের ক্যাডেট হিসাবে ‘সোর্ড অব অনার’ এবং বরকত হোসেন সামরিক বিষয়ে শ্রেষ্ঠত্বের জন্য ‘সেনা বাহিনী প্রধান স্বর্ণপদক’ অর্জন করেন। প্রধানমন্ত্রী তাদের হাতে সম্মাননা তুলে দেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন