আফিফ ঝড়ে জয় পেলো রাজশাহী

প্রকাশিত: ডিসে ২৫, ২০১৯ / ১২:০৭পূর্বাহ্ণ
আফিফ ঝড়ে জয় পেলো রাজশাহী

আফিফ ঝড়ে জয় পেয়েছে রাজশাহী। রাজশাহীর তরুণ ক্রিকেটার আফিফ হোসেনের দারুণ ইনিংসের কাছে বৃথা গেল মালানের সেঞ্চুরি। ১৭১ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৩ বল আগেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় রাজশাহী রয়্যালস।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৬ করেন আফিফ। তাঁর ইনিংসটি ছিল আটটি চার ও দুটি ছক্কায় সাজানো। এ ছাড়া ৪০ রান করেন বোপারা। লিটন দাস করেন ২৭ রান।

শেষ পর্যন্ত সাত উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আন্দ্রে রাসেলরা।

মঙ্গলবার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস জিতে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় রাজশাহী রয়্যালস। রাজাপাকসের সঙ্গে ওপেনিংয়ে নামেন ডেভিড মালান।

ইনিংসের শুরুতে ভালো কিছু করার আভাস দেন দুই বিদেশি ব্যাটসম্যান। কিন্তু রাজাপাকসেকে ফিরিয়ে সেই চেষ্টা বৃথা করে দেন আফিফ হোসেন। এলবির ফাঁদে ফেলে রাজাপাকসেকে ১০ রানে নিজের শিকার বানান আফিফ।

দ্বিতীয় উইকেটে সাব্বির রহমানকে নিয়ে কিছুটা টানেন মালান। ষষ্ঠ ওভারে সাব্বিরকে আউট করে এই জুটি ভাঙেন রাজশাহী অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল। চলতি বিপিএলে রানের খোঁজে থাকা সাব্বির করেন পাঁচ রান।

এরপর একে একে হতাশ করেন সৌম্য সরকার, দাসুন শানাকা, ইয়াসির আলী। সৌম্য করেন ২০ রান আর অধিনায়ক শানাকা করেন ১১ রান।

তবে সতীর্থদের আসা-যাওয়ার মধ্যেই মাত্র ৫৪ বলে ঝড়ো সেঞ্চুরি করেন ইংলিশ ক্রিকেটার মালান। তাঁর একক লড়াইয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৭০ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর সংগ্রহ করে কুমিল্লা। ১০০ রানে অপরাজিত ছিলেন মালান। ৫৪ বলে তাঁর ইনিংসটি ছিল পাঁচ ছয় আর নয়টি বাউন্ডারিতে সাজানো।

রাজশাহীর হয়ে দুটি করে উইকেট শিকার করেন আবু জায়েদ রাহি, আন্দ্রে রাসেল ও ইরফান। এ ছাড়া একটি করে নেন আফিফ হোসেন ও রবি বোপারা।

চট্টগ্রাম পর্বের শেষ ম্যাচে এই জয়ের সুবাদে আট পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়তে উঠে এলো আন্দ্রে রাসেলের রাজশাহী। অন্যদিকে চার পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম অবস্থানেই থেকে গেল কুমিল্লা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন