ভিপি নুরের ওপর হামলা : মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের তিনজন রিমান্ডে

প্রকাশিত: ডিসে ২৪, ২০১৯ / ০৪:৪০অপরাহ্ণ
ভিপি নুরের ওপর হামলা : মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের তিনজন রিমান্ডে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভেতরে ভিপি নুরুল হক নুরসহ তাঁর সহযোগীদের ওপর হামলার ঘটনায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদকসহ তিনজনকে তিন দিন করে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।

আজ মঙ্গলবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাইনুল ইসলাম এ আদেশ দেন বলে এনটিভি অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) নিজাম উদ্দিন।

রিমান্ডকৃত আসামিরা হলেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একাংশের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, দপ্তর সম্পাদক মেহেদি হাসান শান্ত, সংগঠনের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত তূর্য।

দুপুরে আদালতের জিআরও আরো বলেন, আজ ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে গ্রেপ্তার তিনজনকে হাজির করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আরিফুর রহমান সর্দার। অন্যদিকে আসামিদের পক্ষে তাঁদের আইনজীবী রিমান্ড বাতিল করে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক জামিনের আবেদন খারিজ করে প্রত্যেক আসামিকে রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দেন।

এর আগে আজ ভোরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদে (ডাকসু) হামলার ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে আটজনের নাম উল্লেখ করে ৩৫ জনের নামে হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করে।

এজাহারভুক্ত আট আসামি হলেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, ঢাবি শাখার সভাপতি এ এস এম সনেট, সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত তূর্য, এ এফ রহমান হল শাখা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক ইমরান সরকার, কবি জসিম উদ্দিন হল শাখার সাধারণ সম্পাদক ইয়াদ আল রিয়াদ (হল থেকে অস্থায়ী বহিষ্কৃত), জিয়া হল শাখা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তৌহিদুল ইসলাম মাহিম এবং মাহবুব হাসান নিলয়।

এর আগে ডাকসুতে হামলার ঘটনায় গতকাল সোমবার মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আল মামুন এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত তূর্যকে আটক করে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। এরপর আজ মঙ্গলবার ভোরে মেহেদী হাসান শান্তকে আটক করা হয়।

নথি থেকে জানা যায়, গত রোববার দুপুরে ডাকসু ভবনের মূল ফটক বন্ধ করে ভিপি নুরসহ তাঁর সহযোগীদের ওপর লাঠিসোটা নিয়ে হামলা করা হয়। এতে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা অংশ নেন বলে আহতরা দাবি করেন।

হামলায় অন্তত ৩০ জন আহত হন। এর মধ‌্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ১৪ জনকে। তিনজনকে আইসিউইতে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন