গ্রামীণফোনের এখতিয়ারই নেই রাষ্ট্রপতিকে নোটিশ দেওয়ার

প্রকাশিত: ডিসে ২৩, ২০১৯ / ১২:৫৫পূর্বাহ্ণ
গ্রামীণফোনের এখতিয়ারই নেই রাষ্ট্রপতিকে নোটিশ দেওয়ার

গ্রামীণফোনের কাছে বিটিআরসির পাওনার বিষয়ে আর্বিট্রেশন বা সালিশে যাওয়ার জন্য এবার রাষ্ট্রপতির কাছে উকিল নোটিস পাঠিয়েছে গ্রামীণফোন। একে দুঃখজনক হিসেবে উল্লেখ করেছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

তবে টেলিনরের উকিল নোটিশের জবাবও দিয়েছে সরকার বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী।

মন্ত্রী জানান, সরকার টেলিনরের উকিল নোটিশের জবাবে সাফ জানিয়ে দিয়েছে, এ ধরনের নোটিশ দেওয়ার এখতিয়ারই তাদের নেই। কারণ সিঙ্গাপুরের সঙ্গে যে বাণিজ্যিক চুক্তি আছে তার আওয়তায় কেবলমাত্র সিঙ্গাপুরের কোনো কোম্পানির সঙ্গে বিনিয়োগ ও বাণিজ্য বিষয়ে আর্বিট্রেশন বা সালিশের বিষয় আসতে পারে।

এখন টেলিনরের সিঙ্গাপুরে বিনিয়োগ থাকলেও এটি নরওয়ের কোম্পানি, সিঙ্গাপুরের নয়। অতএব সিঙ্গাপুরের আইনি প্রতিষ্ঠান থেকে যে নোটিশ পাঠানো হয়েছে তা সম্পূর্ণ এখতিয়ার বহির্ভূত।

গত ৩০ অক্টোবর সিঙ্গাপুরের অ্যালেন অ্যান্ড ওভারি এলএলপি নামের একটি আইনি সংস্থা বাংলাদেশ এবং সিঙ্গাপুরের মধ্যে বিদ্যমান দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্য চুক্তির বিষয়টি উল্লেখ করে এ উকিল নোটিশ পাঠায় টেলিনর এশিয়া।

নোটিশে বলা হয়, টেলিনর এশিয়া মনে করছে, দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্য চুক্তির মধ্যেই আলোচনার অডিট আপত্তির বিষয়টি নিষ্পত্তি করা সম্ভব।

বিটিআরসির অডিট আপত্তি অনুযায়ী গ্রামীণফোনের কাছে প্রায় সাড়ে ১২ হাজার কোটি টাকা বকেয়া পাওনা রয়েছে সরকারের। এ পাওনা আদায় নিয়ে আইনী লড়ায়ে দেশের সর্বোচ্চ আদালত গ্রামীণফোনকে এরই মধ্যে দুই হাজার কোটি টাকা পরিশোধ করতে বলেছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন