ভুক্তভোগীরা ভাতার টাকা ফেরত পাচ্ছেন মাশরাফি হস্তক্ষেপে

প্রকাশিত: ডিসে ১৮, ২০১৯ / ১২:৪৮অপরাহ্ণ
ভুক্তভোগীরা ভাতার টাকা ফেরত পাচ্ছেন মাশরাফি হস্তক্ষেপে

অবশেষে বাংলাদেশ জাতীয় দলের অধিনায়ক ও নড়াইল-২ আসনের সাংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজার হস্তক্ষেপে ভাতার টাকা ফেরত পাচ্ছেন ভুক্তভোগীরা। সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় ভাতার অব্যয়িত ৬ লাখ ৭৪ হাজার টাকা ফেরত পাচ্ছেন নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার বৃদ্ধ, বিধবা ও অস্বচ্ছল প্রতিবন্ধীরা।

ভুক্তভোগীরা জানান, স্থানীয় সমাজসেবা কার্যালয় থেকে ভাতা প্রদানের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে সঠিক সময়ে সু্বিধাভোগীদের নাম পাঠানো হয়নি। যে কারণে ব্যাংকগুলো তাদের ব্যক্তিগত হিসাবে টাকা জমা করতে পারেননি।

জানা গেছে, গত ৩১ জুলাই এই টাকা বিতরণের সময়সীমা পার হয়ে গেলে অব্যয়িত অর্থ কেন্দ্রীয় ব্যাংক হিসেবে ফেরত নিতে ভাতা বিতরণকারী সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলোকে চিঠি পাঠায় সমাজসেবা অধিদপ্তর। এরপর মাঠ পর্যায়ে ভাতা বিতরণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক শাখায় নির্ধারিত সময়ের আগে ওই টাকা ফেরতের নির্দেশ আসে। এই অবস্থায় এমপি মাশরাফির দ্বারস্থ হন ভুক্তভোগীরা।

এরপর ১৪ নভেম্বর কৃষি ব্যাংক লোহাগড়া শাখার ব্যবস্থাপক বরাবর এক ডিও লেটারে অসহায় দুস্থ মানুষের প্রাপ্য ভাতার টাকা নিয়ে সৃষ্ট আইনি জটিলতা নিরসন করে মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনা করে ফেরতযোগ্য ভাতার টাকা পরিশোধ করতে অনুরোধ করেন মাশরাফি। এরই পরিপ্রেক্ষিতে অব্যয়িত টাকা পর্যায়ক্রমে বিতরণ করছে ওই ব্যাংক শাখাটি।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, লোহাগড়া শাখার ব্যবস্থাপক মামুন অর রশীদ বলেন, আমি অতিসম্প্রতি এখানে বদলি হয়ে যোগদান করে জানতে পারলাম লোহাগড়া উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় থেকে একটি বড় অংশের ভাতাভোগীদের তালিকা সময় মতো দেওয়া হয়নি। যে কারণে গত ৩১ জুলাই ওই টাকা বিতরণের সময় পার হয়ে যাওয়ায় তাদের অব্যয়িত টাকা মাদার অ্যাকাউন্টে জমা রাখা হয়। এছাড়া গত অর্থ বছরের বেশ কিছু টাকাও অব্যয়িত রয়েছে।

ওই সমস্ত টাকা ভাতাভোগীদের মধ্যে ফেরত দিতে এমপি মাশরাফি একটি ডিও লেটার পাঠিয়েছেন। এমপি মহোদয়ের প্রতি সম্মান দেখিয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে ফেরতযোগ্য অর্থ বিতরণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেই অনুযায়ী পর্যায়ক্রমে ভাতাভোগীদের টাকা বিতরণ করা হচ্ছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন