বাংলাদেশি মুসলিম অনুপ্রবেশকারীরাই পশ্চিমবঙ্গে আন্দোলন করছে: রাহুল সিনহা

প্রকাশিত: ডিসে ১৫, ২০১৯ / ০৭:০৮অপরাহ্ণ
বাংলাদেশি মুসলিম অনুপ্রবেশকারীরাই পশ্চিমবঙ্গে আন্দোলন করছে: রাহুল সিনহা

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বেশ কয়েকটি অংশে চলমান বিক্ষোভের পিছনে আসলে হাত রয়েছে বাংলাদেশি মুসলিম অনুপ্রবেশকারীদের, এমনটাই অভিযোগ বিজেপির জাতীয় সচিব রাহুল সিনহার।

রাহুল জানিয়েছেন, রাজ্যে এমন পরিস্থিতি যদি অব্যাহত থাকে তবে বিজেপি রাজ্যে রাষ্ট্রপতির শাসন লাগুর চেষ্টা করবে।

রাহুল সিনহা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তার সংখ্যালঘু ‘তোষণের নীতি’র জন্য দোষারোপ করেছেন। তার দাবি, এই তোষণের ফলেই পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

রাহুল বলেন, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল কার্যকর করার বিষয়ে গত দু’দিন ধরে রাজ্যে ছড়িয়ে পড়া হিংসাত্মক পরিস্থিতি সামলানোর জন্য মুখ্যমন্ত্রী খুব কমই ভূমিকা নিয়েছেন।

আমরা কখনই রাষ্ট্রপতির শাসনকে সমর্থন করি না। তবে পশ্চিমবঙ্গে যদি এই ধরণের অরাজকতা অব্যাহত থাকে, তবে রাজ্যে রাষ্ট্রপতির শাসন চাওয়া ছাড়া আমাদের আর কোন উপায় থাকবে না।

রাহূল সিহার অভিযোগ, পুরো রাজ্য যখন জ্বলছে তখন তৃণমূল সরকার কেবল নীরব দর্শক। আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা না নেয়ার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনা করে রাহুল সিনহা বলেন, মমতা নিজেই বক্তব্যের মাধ্যমে জনতাকে উদ্বুদ্ধ করছেন।

সহিংসতার পিছনে মূলহোতা বাংলাদেশি মুসলিম অনুপ্রবেশকারীরা, এখানকার শান্তিকামী মুসলিম সম্প্রদায় নয়। বাংলার মুসলিম সম্প্রদায়ের সতর্ক হওয়া উচিৎ। তাদের নাম দাঙ্গাবাজরা যেন কলঙ্কিত না করে।

বিজেপি অতীতেও প্রায়শই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ভোটবাক্সের জন্য মুসলিম তোষণের অভিযোগ এনেছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন