মমতা একজনকেও ভারত থেকে তাড়াতে দেবেন না

প্রকাশিত: ডিসে ১০, ২০১৯ / ০১:৫৩পূর্বাহ্ণ
মমতা একজনকেও ভারত থেকে তাড়াতে দেবেন না

ভারতের লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধন বিল পাশের পর পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, তিনি ভারত থেকে কাউকে তাড়াতে দেবেন না।

সোমবার খড়গপুরে এক সমাবেশে মমতা নাগরিকত্ব সংশোধন বিল (সিএবি) এবং জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) কে মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ বলেও মন্তব্য করেছেন।

ভারতজুড়ে তুমুল বিতর্কের মধ্যেই সোমবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ নাগরিকত্ব সংশোধন বিল উত্থাপন করেন। বিলের পক্ষে ভোট পড়েছে ২৯৩টি এবং বিপক্ষে পড়েছে ৮২টি ভোট।

বিলটি পাশের পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘আসুন জোট বাঁধি। একটা লোককেও দেশ থেকে তাড়ানো চলবে না। নো এনআরসি। কোনও বিভাজন হবে না, নো ডিভাইড অ্যান্ড রুল।’

মমতা আরও বলেন, ‘সিএবি বলুন, আর এনআরসি বলুন, কয়েনের এ পিঠ আর ও পিঠ।’ ‘আমরা সবাই নাগরিক, সবাই ভোট দিই। সবারই রেশন কার্ড আছে।

কারও একটা স্কুল সার্টিফিকেট আছে, কারও একটা কাজ করার সার্টিফিকেট আছে, কারও জমির পাট্টা আছে। কিছু না কিছু তো আছে। তা হলে আবার নাগরিকত্ব নিয়ে কিসের প্রশ্ন?’ জানতে চান মমতা।

উল্লেখ্য, সোমবার লোকসভায় বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধন বিল পাস হয়েছে। এর আগে ৪ ডিসেম্বর প্রস্তাবিত বিলটি ভারতের মন্ত্রীসভায় অনুমোদন পায় । ১১ ডিসেম্বর এই বিল রাজ্যসভায় উত্থাপিত হতে পারে।

বিলটি পাস হলে আফগানিস্তান, পাকিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে আসা হিন্দু, শিখ, জৈন, পার্সি, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী মানুষ, যারা ভারতে শরণার্থী হিসেবে রয়েছেন তাদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। তথ্যসূত্র: এনডিটিভি ও আনন্দবাজার পত্রিকা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন