ধাক্কা দিয়ে চালকসহ মোটরসাইকেল ফেলে দিয়ে বললেন : কী সরি বলব, মরে তো যাননি

প্রকাশিত: ডিসে ৮, ২০১৯ / ১১:৫৯পূর্বাহ্ণ
ধাক্কা দিয়ে চালকসহ মোটরসাইকেল ফেলে দিয়ে বললেন : কী সরি বলব, মরে তো যাননি

রাজধানীতে পুলিশের গাড়ির ধাক্কায় আহত হয়েছেন অনলাইন নিউজপোর্টাল বার্তা২৪ডটকমের অপরাধবিষয়ক প্রতিবেদক শাহরিয়ার হাসান। শনিবার ধানমন্ডি ২৭-এ এই ঘটনা ঘটে।

ঘটনা সম্পর্কে শাহরিয়ার হাসান বলছিলেন, ‘আমি বাইক চালিয়ে ধানমন্ডি থেকে অফিসে ফিরছিলাম। তখন একটা পাজেরো গাড়ি আমাকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে বাইক নিয়ে আমি রাস্তায় পড়ে যাই। পরে উঠে দাঁড়াতেই দেখি গাড়িটা দ্রুতগতিতে চলে যাচ্ছে। বাইক স্টার্ট দিয়ে দ্রুত পাজেরো গাড়িটির গতিরোধ করি।’

‘চালককে নামতে বললে তিনি বলেন- রাস্তা থেকে সরে যান। পরে পুলিশের পোশাক পরা একজন গাড়ি থেকে নেমে বলেন, কী হয়েছে? আমি বলি, গাড়ির ভেতরে কে আছেন, তাকে নামতে বলুন। এমনভাবে গাড়ি চালাচ্ছেন আমি তো এখনই মরে যাচ্ছিলাম।

ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিলেন, দুঃখ প্রকাশ তো করতে পারতেন। চালক (পুলিশের পোশাক পরা) উত্তরে বলেন, কী সরি বলবো? মরে তো যাননি? ভেতরে ডিআইজি স্যার। রাস্তা ছাড়েন। এই বলে আমার সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়েন।’

‘ঘটনার বেশ কিছু সময় পর গাড়ি থেকে পুলিশ কর্মকর্তার ব্যক্তিগত অফিসার বেরিয়ে আমার বাইকের ছবি তুলেন। ওই কর্মকর্তা বলেন, রাস্তা ছাড়েন ভাই। ডিআইজি স্যার বসে আছেন।

তখন গাড়িটির চালক আমাকে বলেন, ক্ষতিপূরণ দেন। না হয় ট্র্যাফিক ডাকি। উত্তরে আমি বলি, ডিআইজি তো কী হয়েছে? গাড়ি চাপা দিয়ে মেরে ফেলবেন, একটা সরি পর্যন্ত বলবেন না? নামতে বলেন, তার মুখটা দেখি। তখন আবারও আমাকে বলা হয়, স্যার বিরক্ত হচ্ছেন ভাই, রাস্তা ছাড়েন।’

পরে পায়ে ব্যথা অনুভব হওয়ায় গাড়িটি ছেড়ে দেন শাহরিয়ার। এ বিষয়ে পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া) মীর সোহেল রানা বলেন, ‘সাংবাদিকের সঙ্গে এমন আচরণ দুঃখজনক। আমরা গাড়ির নম্বর পেয়েছি। ওই গাড়িতে কে ছিলেন তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

সূত্র : জাগো নিউজ

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন