কৃষি ব্যাংকের ভল্ট ভেঙে ফিল্মি স্টাইলে ১১ লাখ টাকা লুট

এবার কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ‘ফিল্মি স্টাইলে’ কৃষি ব্যাংকের ভল্টের তালা ভেঙে ১১ লক্ষাধিক টাকা লুট হয়েছে। সিকিউরিটি গার্ডরে কর্তব্য পালনে অবহেলার কারণে এই লুটের ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বুধবার ভোর রাতে উপজেলার উজিরপুর ইউনিয়নের মিয়াবাজারে হায়দার সুপার মার্কেটের ৩য় তলায় কৃষি ব্যাংকের শাখায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ব্যাংক শাখা ব্যবস্থাপক মো. শাকির ছালেহীন নাইটগার্ডকে আসামি করে চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ এ ঘটনায় করা মামলার আসামি নাইটগার্ড মো. সেলিমের (৩২) পাশাপাশি অপর নাইটগার্ড শাহজাহানকেও (৩৮) আটক করেছে।

খবর পেয়ে কুমিল্লা জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন, এএসপি (সার্কেল) মো. সাইফুল ইসলাম সাইফ, চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মাহফুজসহ পুলিশ, ডিবি ও পিবিআইয়ের কয়েকটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ব্যাংকের পেছনের জানালার গ্রিল কেটে চোরেরা ভেতরে প্রবেশ করে গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র তছনছ করে আলমারিতে রক্ষিত নগদ ১১ লাখ ১৩ হাজার ১শ ৩৩ টাকা নিয়ে যায়।

এ সময় গার্ডের দায়িত্বে থাকা মো. সেলিম কাজে ফাঁকি দিয়ে বাড়িতে গিয়ে ঘুমিয়ে ছিল বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়।

বুধবার সকাল সাড়ে সাতটায় ব্যাংকের পিয়ন মো. আবু তাহের ব্যাংকে এসে দরজা খুলে ভেতরে প্রবেশ করে আলমারি ভাঙা ও কাগজপত্র তছনছ করা অবস্থা দেখতে পেয়ে কর্মকর্তাদের ফোনে জানান। খবর পেয়ে ম্যানেজারসহ সকল কর্মকর্তারা ব্যাংকে এসে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং পুলিশকে ফোনে জানায়। পরে কৃষি ব্যাংক কুমিল্লা অঞ্চলের জিএম আমিনুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ব্যাংক ডাকাতির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মাহফুজ বলেন, ‘পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে। দ্রুততর সময়ের মধ্যে অপরাধীদের গ্রেপ্তার করার চেষ্টা করছি’।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত