কে কী খাবে, তা নির্ধারণ করা সরকারের দায়িত্ব নয় : মির্জা ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকারের দায়িত্ব দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করা। কে কী খাবে, তা নির্ধারণ করা সরকারের দায়িত্ব নয়। আজ মঙ্গলবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি। এ সময় তিনি দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি রোধে সবাইকে এর বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের আহ্বান জানান।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘দ্রব্যমূল্যের বাজারকে অসহনীয় করার জন্য দায়ী ভোটারবিহীন সরকার। দলীয় ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট না ভাঙতে পারলে এবং টিসিবিকে নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ সম্ভব নয়। রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে দেশের ক্রিয়াশীল ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিচ্ছে সরকার।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘দেশবাসীর কাছ থেকে তাদের ভোটাধিকার আর নাগরিক মর্যাদাই এই ফ্যাসিবাদ স্বৈরাচার সরকার ছিনিয়ে নেয়নি, এমনকি তাদের দৈনন্দিন জীবনের সুখ-শান্তিও আজ একের পর এক কেড়ে চলেছে এই ভোটারবিহীন গণবিরোধী সরকার। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের বাজার নিয়ন্ত্রণেও সরকার ব্যর্থ হয়েছে। যার সর্বশেষ প্রমাণ পেঁয়াজ, চাল, ডাল, তেল, লবণ থেকে শুরু করে সব নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের অসহনীয় মূল্যবৃদ্ধি। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের এই অগ্নিমূল্য লাগাতারভাবে আমাদের সাধারণ জনজীবনকে চরমভাবে বিপর্যস্ত করে ফেলেছে।’

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, ‘বাজারে দ্রব্যমূল্য বাড়লে নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব সম্পূর্ণরূপে সরকারের। জনগণ কী খাবে, কী খাবে না—তা নির্ধারণের দায়িত্ব সরকারের না! এর ব্যত্যয় ঘটার কোনো সুযোগ নেই। যদি এর ব্যত্যয় ঘটে, তাহলে পরিষ্কারভাবে বুঝতে হবে সরকার বাজার নিয়ন্ত্রণে সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ। বর্তমানে আমাদের দৈনন্দিন নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের যে লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধি ঘটেছে তার একটাই কারণ, সেটা হচ্ছে, এই সরকার জনগণের সরকার নয়।’

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত